শিরোনাম
প্রকাশ : ৬ জুলাই, ২০২০ ১০:২৪

করোনার মধ্যেই চীনে নতুন মহামারীর শঙ্কা, চরম আতঙ্ক

অনলাইন ডেস্ক

করোনার মধ্যেই চীনে নতুন মহামারীর শঙ্কা, চরম আতঙ্ক

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে ইতোমধ্যে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে গোটা বিশ্ব। অভিযোগ রয়েছে, এই ভাইরাস ছড়িয়ে চীন থেকে, যা গোটা বিশ্বে মারাত্মক বিপর্যয় ডেকে এনেছে। এর মধ্যেই এবার উত্তর চীনে বুবোনিক প্লেগ রোগ ছড়িয়ে পড়ার ঘটনা সামনে এসেছে। এখনই যথাযথ পদক্ষেপ না নিলে এই রোগ মহামারীর আকার নিতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। প্লেগ দেখা দেওয়ায় রবিবার সতর্কবার্তা জারি করেছে চীন সরকার।

শনিবার বায়ান্নুরের একটি হাসপাতালে সন্দেহজনক একটি প্লেগে আক্রান্ত হওয়া ঘটনা সামনে এসেছে। যার জেরে প্রশাসনিক মহলের অন্দরে হইচই পড়ে যায়। যার ফলশ্রুতিতে রবিবার প্লেগ প্রতিরোধ এবং নিয়ন্ত্রণে বায়ান্নুর এবং ইনার মঙ্গোলিয়া অটোনমাশ রিজিয়নে লেভেল-থ্রি সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে। চলতি ২০২০ সালের শেষ পর্যন্ত এই নির্দেশিকা জারি থাকবে।

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম পিপলস ডেইলি অনলাইনে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

চীনের স্বাস্থ্য দফতরের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘বর্তমানে শহরে প্লেগ রোগ মহামারির আকার নেওয়ার মতো আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষকে আত্মসুরক্ষায় তৎপর এবং সচেতন থাকতে হবে। পাশাপাশি স্বাস্থ্য বিষয়ে কোনো অস্বাভাবিক ঘটনা ঘটলে সঙ্গে সঙ্গে তা স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্র বা সংশ্লিষ্ট সরকারি অফিসে জানাতে হবে।’

ভিন্ন এক প্রতিবেদনে সিনহুয়া জানিয়েছে, পশ্চিম মঙ্গোলিয়ার খোভদ প্রদেশে সম্প্রতি দুই বাবোনিক প্লেগ রোগীর সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে একজনের বয়স ২৭ বছর এবং অন্য জনের বয়স ১৭ বছর। তাঁরা সম্পর্কে দুই ভাই। ওই প্রদেশেরই দু'টি আলাদা হাসপাতালে দু'জনের চিকিৎসা চলছে। তাদের সংস্পর্শে আসা আরও ১৪৬ জনকে চিহ্নিত করে আইসোলেট করা হয়েছে। হাসপাতালে তাদের চিকিৎসা চলছে।

বুবোনিক প্লেগ একটি ভয়াবহ ব্যাকটেরিয়াঘটিত রোগ। সঠিক সময়ে চিকিৎসা না হলে মাত্র ২৪ ঘণ্টার মধ্যে কোনও প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তির এতে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

ওই দুই ভাই মারমোটের মাংস খেয়ে বুবোনিক প্লেগে আক্রান্ত হয়েছেন। সেখান থেকে রোগ ছড়ায়। এ কারণে মারমোটের মাংস না খাওয়ার জন্য প্রশাসন থেকে বলা হয়েছে। সূত্র: এই সময়

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর