শিরোনাম
প্রকাশ : ২১ নভেম্বর, ২০২০ ২০:১৬

১৪ বছর বয়সেই স্নাতক

অনলাইন ডেস্ক

১৪ বছর বয়সেই স্নাতক
মায়ের সঙ্গে কিশোর অগস্ত্য জয়সওয়াল

মাত্র ১৪ বছর বয়সে স্নাতক সম্পন্ন করে ভারতবাসীকে তাক লাগিয়ে দিল তেলেঙ্গানার কিশোর অগস্ত্য জয়সওয়াল। সে ভারতের কনিষ্ঠতম স্নাতক। এমনটাই দাবি তেলেঙ্গানার ‘ওয়ান্ডার বয়ে’র।

সম্প্রতি ওসমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকস্তরের পরীক্ষার ফল বেরিয়েছে। তাতেই মেস কমিউনিকেশন ও জার্নালিজমে স্নাতক ডিগ্রি পেয়েছে অগস্ত্য। মাত্র ৯ বছর বয়সে মাধ্যমিক স্তরের পরীক্ষায় পাস করেছিল সে। ১১ বছর বয়সে পাস করেছিল উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের পরীক্ষা। তাতে পেয়েছিল ৬৩ শতাংশ নম্বর। পড়াশোনার পাশাপাশি খেলাধুলাতেও দক্ষ অগস্ত্য। পেশাদার টেবিল টেনিস খেলোয়াড় সে। খেলে জাতীয় স্তরে। ভালো পিয়ানো বাজাতে পারে অগস্ত্য। আবার এইটুকু বয়সেই আন্তর্জাতিক মোটিভেশনাল স্পিকার। সমস্ত দিকেই তার প্রতিভার বিকাশ ঘটেছে।

ছেলের প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে অগস্ত্যর বাবা অশ্বিণী কুমার জয়সওয়াল জানান, প্রত্যেক শিশুর মধ্যেই বিশেষ গুণ থাকে। বাবা-মা যদি তাকে সঠিক পথে চালিত করেন, সেই গুণের বিকাশ ঘটতে সাহায্য করেন, তাহলে প্রত্যেক শিশুর পক্ষেই অসাধারণ কিছু করা সম্ভব। 

অগস্ত্যর মা জানান, খেলার ছলেই সমস্ত কিছু ছেলেকে শিখিয়েছেন তারা। ছোটবেলা থেকেই অগস্ত্যের কৌতূহল প্রচুর। বাস্তবসম্মত ব্যাখ্যা দিয়ে তার সব প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করেছেন বাবা-মা। প্রত্যেকটা বিষয় অগস্ত্যকে বোঝার জন্য অনুপ্রেরণা দিয়েছেন। ভাষা রপ্ত করতে শিখিয়েছেন। বই পড়ার পাশাপাশি বাবা-মায়ের কাছ থেকেই সমস্ত শিক্ষা পেয়েছে বলে জানায় অগস্ত্য। মাস কমিউনিকেশন ও জার্নালিজমে স্নাতক হলেও তার স্বপ্ন ডাক্তার হওয়ার। তাই এবার এমবিবিএস ডিগ্রি পেতে চায় সে। 

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন  

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর