শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০১৩ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ জুলাই, ২০১৩ ০০:০০

প্রতিদিনের ইফতার

বেইলি রোড এখন ইফতার বাজার

বেইলি রোড এখন ইফতার বাজার

নাট্যপাড়া হিসেবে খ্যাত বেইলি রোডের সুনাম অনেক আগ থেকেই। সেই সুনামের সঙ্গে এখন যুক্ত হয়েছে ইফতারির বাজার হিসেবেও। দুপুর গড়ালেই সড়কের দুই পাশ, রেস্তোরাঁগুলো ব্যস্ত হয়ে ওঠে রকমারি ইফতারির সওদা নিয়ে।

নাটক মঞ্চায়ন ছাড়াই সেখানে নারী-পুরুষ-শিশুদের ঢল নামছে প্রতিদিন। প্রায় সবাই ব্যস্ত থাকে হরেক পদের ইফতার কেনাকাটা নিয়ে। আর ইফতারির নামগুলোও চমৎকার- ডিমের হালুয়া, লাবাং, লাচ্ছি, ফালুদা, মিষ্টি দই, জর্দা, পনির সমুচা, কিমা সমুচা, কিমা পরোটা, পনির রোল, পনির পরোটা, চিকেন শর্মা, পাটিশাপটা, খাসির হালিম, মুরগির হালিম, তালের বড়া, জাফরানি জিলাপি, চিকন জিলাপি, সাসলিক, ড্রামস্টিক, অনথন, জাফরানি শরবত, ফ্রোনবল, কোপ্তা, জুস, লুচি, ছোলাবুট, ডাবলি গুমনি, বড়বাপের পোলায় খায়, ছানা মসলা, ফিশ কোপ্তা, লাচ্চাসেমাই, গ্রিল স্যান্ডউইচ, বিফবল, বিফ কাটলেট, ইরানি কাবাব, মাটন কাবাব আরও কত কী। ইফতারির আয়োজন চমৎকার থাকলেও ইফতারির দাম নিয়ে ক্রেতাদের অভিযোগ রয়েছে। অন্য বাজারের তুলনায় বেইলি রোডের বাজারে ইফতারি সামগ্রীর দাম বেশ চড়া। তবে তাতেও কিন্তু বেচাকেনায় কোনো কমতি নেই। সন্ধ্যা-পূর্ব সময়ে ইফতার জোগাতে দোকানিদের রীতিমতো হিমশিম খেতে হয়। গতকাল রমজানের তৃতীয় দিনে ইফতারি কিনতে বেইলি রোডের বেইলি বারবিকিউ, গার্ডেন ওয়েসিস, সুইস, ডেকেরাট, ফ্রেশকো, শাহী মামা পেঁয়াজু ক্যাপিটাল কনফেকশনারি খাবারের দোকানে প্রচণ্ড ভিড় দেখা গেল। বেইলি রোডে বেশ বড় আকারের ইফতারির পসরা সাজিয়ে আছে ক্যাপিটাল কনফেকশনারি। প্রতি বছর ইফতারির তালিকায় শতাধিক আইটেম থাকে তাদের। এবার আয়োজন থাকলেও আইটেম একটু কম। এ ব্যাপারে ক্যাপিটাল কনফেকশনারি কর্তৃপক্ষ বলছে, বাজারে ভোজ্যপণ্যের দাম বেশি বলে তাদের ইফতারির দামও কিছুটা বেড়েছে এবং কমে গেছে আইটেম সংখ্যা।

ক্যাপিটালের গরুর চপ, খাসির চপ, মগজ, খাসির আস্ত রানের রোস্ট, মুরগির রোস্ট, ফ্রাই, দোপেঁয়াজি, সুতি কাবাব, শিক কাবাব, টিক্কা, জালি কাবাব, রেশমি কাবাব, হালিম, জিলাপি, পনির পরোটা, তেহারি, খাসির কাচ্চি, মাছের কাচ্চি ইফতার ক্রেতাদের দারুণভাবে আকৃষ্ট করে। বেইলি বারবিকিউতে পাওয়া যাচ্ছে শাহী জিলাপি, চিকেন সরমা, কাবাব রোল, এগ চপ সবজি পাকোড়া, তন্দুরি চিকেন, মুঠিকাবাব হালিম, ড্রামস্টিকসহ ৩১ ধরনের ইফতার। ফখরুদ্দিনের ইফতারির বাজারে রয়েছে প্রায় অর্ধশত পদ। হরেক রকমের কাবাব, খাসির কাচ্চি, লুটি, পরাটা, দইবড়া, বোরহানি প্রভৃতি পাওয়া যাবে ফখরুদ্দিনের ইফতারির আয়োজনে। বেইলি রোডে ইতোমধ্যে সুনাম অর্জন করেছে বেইলি পিঠাঘর। তাদের অন্যতম কয়েকটি হলো_ পুলি পিঠা, জালি কাবাব, পিয়াজু, জিলাপি, হালিম ইত্যাদি। 'রস' মিষ্টির দোকানে ক্রেতা ভিড় থাকছে প্রতিদিনই। বামার্স ক্যাফেতে ১১টি আইটেম দিয়ে ইফতারের বঙ্ থাকছে। বঙ্ ছাড়াও ১৮টি আইটেমের সমন্বয়ে আলাদা ইফতার প্যাকেজও রয়েছে। ক্রেতাদের অভিমত, নতুন ঢাকার আভিজাত্য এবং পুরান ঢাকার স্বাদের ঐতিহ্য সমন্বয়ে তৈরি হয় বেইলি রোডের ইফতারি। পরিচ্ছন্ন পরিবেশ ও স্বাদের ভিন্নতায় বেইলি রোড অনেকের কাছেই স্বাচ্ছন্দ্যের ইফতার বাজার হয়ে উঠেছে। বেইলি রোডের দোকানে দোকানে হরেক রকমের ইফতারির আইটেম পাওয়া যায়।

 

 


আপনার মন্তব্য

Bangladesh Pratidin

Bangladesh Pratidin Works on any devices

সম্পাদক : নঈম নিজাম,

নির্বাহী সম্পাদক : পীর হাবিবুর রহমান । ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট নং-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, বারিধারা, ঢাকা থেকে প্রকাশিত এবং প্লট নং-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ থেকে মুদ্রিত। ফোন : পিএবিএক্স-০৯৬১২১২০০০০, ৮৪৩২৩৬১-৩, ফ্যাক্স : বার্তা-৮৪৩২৩৬৪, ফ্যাক্স : বিজ্ঞাপন-৮৪৩২৩৬৫। ই-মেইল : [email protected] , [email protected]

Copyright © 2015-2020 bd-pratidin.com