Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ৯ নভেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা
আপলোড : ৮ নভেম্বর, ২০১৬ ২৩:২২

ডুবোচরে দুই ঘণ্টা আটকা মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতারা

মাদারীপুর প্রতিনিধি

ডুবোচরে দুই ঘণ্টা আটকা মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতারা

আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত কমিটির সদস্যরা দুই ঘণ্টা আটকে ছিলেন ডুবোচরে। তারা নৌপথে ঢাকা থেকে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মাজার জিয়ারতের জন্য যাচ্ছিলেন। কাওড়াকান্দি-শিমুলিয়া নৌরুটে লৌহজং হাজরা চ্যানেলে গতকাল এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ফেরি ভাষাসৈনিক ডা. গোলাম মাওলা তাদের বহন করছিল। নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খানসহ মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতারা আটকে পড়া ফেরিতে অবস্থান করছিলেন। স্থানীয় বাসিন্দা ও আটকে পড়া নেতারা জানান, সকাল ৯টায় ফেরিটি শিমুলিয়া ঘাট থেকে কাওড়াকান্দি ঘাটের উদ্দেশে ছেড়ে আসে। মাঝনদী পাড়ি দিয়ে লৌহজং-হাজরা চ্যানেলে প্রবেশ করার পরই ফেরিটি ডুবোচরে আটকে যায়। পরে প্রায় দুই ঘণ্টা আওয়ামী লীগ নেতা এবং মন্ত্রিপরিষদের সদস্যদের কাওড়াকান্দি ও শিমুলিয়া ঘাট থেকে স্পিডবোট এনে বিকল্প পথে গন্তব্যে পৌঁছানো হয়। বেলা ১২টার সময় কাওড়াকান্দি ঘাট থেকে স্থানীয় পরিবহন মাইক্রো ও বিভিন্ন যানবাহনে চড়ে তারা গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশে রওনা দেন। তবে ডুবোচরে ফেরি আটকে যাওয়ার ঘটনা মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের নেতাদের মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার করে। এ ব্যাপারে নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেন, নদীতে ভাটার সময় আবার ফেরিটি এ রুটে নতুন করে আনা হয়েছে। এ ফেরি চলাচলের জন্য নদীতে পানির গভীরতার প্রয়োজন বেশি। কিন্তু এই চ্যানেলের এ মুখে সেই পরিমাণ পানি নেই। তাই ফেরিটি আটকে গেছে। তিনটি উদ্ধারকারী জাহাজ ফেরিটিকে ডুবোচর থেকে টেনে নামানোর কাজ করছে। নেতাদের বিকল্প পন্থায় স্পিডবোটে কাওড়াকান্দি ঘাটে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। সেখান থেকে তারা গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশে রওনা হয়েছেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর