শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২৮ এপ্রিল, ২০১৭ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৮ এপ্রিল, ২০১৭ ০০:১৫

পদ্মা সেতুতে বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে সাড়ে ৬ হাজার কোটি টাকা

বাজেট ২০১৭-১৮

মানিক মুনতাসির


পদ্মা সেতুতে বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে সাড়ে ৬ হাজার কোটি টাকা

২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেটে মেগা প্রকল্প হিসেবে পদ্মা সেতুর জন্য বরাদ্দ রাখা হচ্ছে সাড়ে ৬ হাজার কোটি টাকা। এ প্রকল্পে মোট ব্যয় হবে ২৮ হাজার ৭৯৩ কোটি টাকা। চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত মোট ব্যয় হয়েছে ১১ হাজার ৩৭৭ কোটি টাকা। চলতি অর্থবছরের মূল বাজেটে এ প্রকল্পে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৬ হাজার ২৬ কোটি টাকা। অর্থবিভাগ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সেতু বিভাগের তথ্যমতে, মার্চ পর্যন্ত পদ্মা সেতু প্রকল্পের সার্বিক ভৌত অগ্রগতি ৩৬ শতাংশ। এটা মূল সেতুর ক্ষেত্রে ২৯ শতাংশ, নদীশাসন কাজে ২৪ শতাংশ, জাজিরা সংযোগ সড়কে ৭৭ শতাংশ, মাওয়া সংযোগ সড়কে ৯৯ শতাংশ কাজ এগিয়েছে। আরেক মেগা প্রকল্প পদ্মা সেতু রেল সংযোগ স্থাপন প্রকল্পে আগামী অর্থবছরের বাজেটে বরাদ্দ দেওয়া হতে পারে ৫ হাজার ৬৩ কোটি টাকা। চলতি বাজেটে এ প্রকল্পে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৪ হাজার ১০২ কোটি টাকা। এ প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৩৪ হাজার ৯৮৮ কোটি টাকা। এখন পর্যন্ত খরচ হয়েছে মাত্র চার কোটি টাকা। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ঘোষণা অনুযায়ী, আগামী ২০১৮ সালেই পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শেষ হবে এবং জনগণের চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে। মন্ত্রী বলছেন, ঐদিন থেকেই পদ্মা সেতুতে রেলও চলবে। সূত্র জানায়, বর্তমান সরকারের নেওয়া ফাস্ট ট্র্যাকভুক্ত বৃহৎ ১০টি প্রকল্পের মধ্যে আটটিতে আগামী অর্থবছরে ৩৩ হাজার ৭৬১ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হচ্ছে। এসব প্রকল্পে চলতি অর্থবছরের বাজেটে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ২৪ হাজার ৫৮২ কোটি টাকা। এসব প্রকল্প বাস্তবায়নে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছে সরকার। আর দুটি প্রকল্পে বরাদ্দের ব্যাপারে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে অর্থবিভাগ বলছে সোনাদিয়া গভীর সমুদ্র বন্দর এবং এলএনজি টার্মিনাল নির্মাণে আগামী বছরগুলোতে কি পরিমাণ অর্থের প্রয়োজন হবে তা এখনো নির্ধারণ করতে পারেনি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়। ফলে এ দুটি প্রকল্প বাদে আটটি প্রকল্পের জন্য মেগা বাজেট হিসেবে ৩৩ হাজার ৭৬১ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হতে পারে। সূত্র জানায়, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অবকাঠামো প্রকল্প রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য আগামী বাজেটে সবচেয়ে বেশি ১১ হাজার ২৪৩ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হতে পারে। এ প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে এক লাখ ১৩ হাজার ৪৫৪ কোটি টাকা। চলতি অর্থবছরে এ প্রকল্পে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৬ হাজার ৫৩২ কোটি টাকা। ঢাকার যানজট নিরসনে নেওয়া মেগা প্রকল্প মেট্রোরেলের কাজ চলছে দ্রুত গতিতে। ২১ হাজার ৯৮৫ কোটি টাকার এ প্রকল্পে এবার বরাদ্দ রাখা হচ্ছে তিন হাজার ৭৫০ কোটি টাকা। চলতি অর্থবছরে বরাদ্দ রাখা হয় দুই হাজার ২২৭ কোটি টাকা। সবচেয়ে বড় কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্প মাতারবাড়ী। এ প্রকল্পে মোট ব্যয় হবে ৩৫ হাজার ৯৮৪ কোটি টাকা। চলতি অর্থবছরে এ প্রকল্পে দুই হাজার ৪০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়। আসছে অর্থবছরে বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে এক হাজার ৮৩৬ কোটি টাকা। এ ছাড়া রামপাল থার্মাল পাওয়ার প্লান্টে আগামী অর্থবছরে এক হাজার ৪০২ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হচ্ছে বলে জানা গেছে। এ প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১৪ হাজার ৫৮৪ কোটি টাকা। এদিকে পায়রা গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণ প্রকল্পে বরাদ্দ রাখা হচ্ছে ৬০০ কোটি টাকা। এ প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে এক হাজার ১২৮ কোটি টাকা। দোহাজারী থেকে রামু হয়ে কক্সবাজার পর্যন্ত প্রায় ১০১ কিলোমিটার রেলপথ নির্মাণ প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার। এতে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১৮ হাজার ৩৪ কোটি টাকা। আগামী অর্থবছরের বাজেটে এ প্রকল্পে তিন হাজার ৩৬৬ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করতে যাচ্ছেন অর্থমন্ত্রী।

 


আপনার মন্তব্য