Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:১১

রাজনীতি আর ক্ষমতার খেলা নিয়ে মর্ষকাম

সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক

রাজনীতি আর ক্ষমতার খেলা নিয়ে মর্ষকাম

রাজনীতি আর ক্ষমতার দ্বন্দ্বের গল্প নিয়ে নাটকের দল থিয়েটার আর্ট ইউনিট মঞ্চায়ন করেছে ভিন্ন ধারার গল্পের নাটক ‘মর্ষকাম’। গতকাল সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে মঞ্চায়িত হয় নাটকটি। তিনটি পৃথক অঙ্কে তিনটি ভিন্ন রূপে চক্রাকারে পুনরাবৃত্ত হয় একই নাটক। প্রতিটি অঙ্কে বারবার ফিরে আসে একই সব চরিত্র—প্রেসিডেন্ট, অর্থমন্ত্রী, সচিব, জেনারেল ও মিস্টার এক্স। রাজনীতি ও ক্ষমতার খেলা চলতে থাকে। আর এসব নিয়ন্ত্রণ করে কোনো এক অদৃশ্য পরাশক্তির প্রতিনিধি ‘মিস্টার এক্স’। এ খেলা দমন ও নিয়ন্ত্রণের। বারবার প্রতিরোধ গড়ে ওঠে। পরিবর্তিত হয় পুরনো রাজনৈতিক দৃশ্যপট আর ভিন্ন স্থানে ভিন্ন আঙ্গিকে শুরু হয় নতুন রাজনৈতিক পটভূমি। কিন্তু অবসান হয় না সেই পুরনো রাজনৈতিক ক্রিয়ার, সেই আদি ও অকৃত্রিম খেলার। এভাবেই এগিয়ে যায় ‘মর্ষকাম’-এর কাহিনী।

নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রের অভিনয় শিল্পীরা হলেন— মোহাম্মদ বারী, চন্দন রেজা, সেলিম মাহবুব, মেহমুদ সিদ্দিকী, নুরুজ্জামান বাবু, মাহফুজ সুমন, সম্পদ, সজল চৌধুরী, সাথী রঞ্জন দে, হাসনাত প্রদীপ, স্বাধীন শাহ, সুজন রেজাউল, সরকার জামান, ফেরদৌস আমিন বিপ্লব, লেমন, পিয়ার মোহাম্মদ, রাকিব, জায়েদ হোসেন, মাজিদুল মিঠু, ভাবনা, সূচি চৌধুরী, সুমন আকন্দ, আকাশ মোদক, আবির সায়েম, ফারহানা আক্তার, সুদীপ্ত প্রমুখ।

বৈকুণ্ঠের ‘ছড়ায় ছড়ায়  প্রেম’ : কবিতার মধ্য দিয়ে মানবপ্রেম ও মানবতার জয়গান গাইল আবৃত্তি সংগঠন বৈকুণ্ঠ আবৃত্তি একাডেমি। শব্দের পরে শব্দ বসিয়ে দৃপ্ত উচ্চারণে মানুষের প্রতি মানুষের গভীর ভালোবাসার কথাই তুলে ধরলেন বাচিকশিল্পীরা। গতকাল সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার পরীক্ষণ থিয়েটার হলে অনুষ্ঠিত হয় ‘ছড়ায় ছড়ায় প্রেম’ শিরোনামের এই আবৃত্তির আসর। প্রযোজনাটির নির্দেশক আবৃত্তিকার শিমুল মুস্তাফা জানান, মানুষের ভিতরে আনন্দ ছড়িয়ে দিয়ে হৃদয়জুড়ে প্রশান্তির বাতাস বইয়ে দিতেই তাদের এই প্রয়াস। একঝাঁক তরুণ বাচিকশিল্পীর পরিবেশনার এই আবৃত্তির আসর মিলনায়তনে আগত কবিতাপ্রেমী মানুষদের আলোড়িত করে দারুণভাবে। প্রতিটি পরিবেশনার সঙ্গেই দর্শক-শ্রোতাদের ছিল গভীর মনোযোগ আর পরিবেশনা শেষে মুহুর্মুহু করতালি।


আপনার মন্তব্য