Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৩ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ জানুয়ারি, ২০১৯ ২২:৩৭

বসুন্ধরায় মেশিনারিজ মেলা

শেষ দিনেও দর্শনার্থীর ভিড়

নিজস্ব প্রতিবেদক

শেষ দিনেও দর্শনার্থীর ভিড়

শেষ হলো গার্মেন্ট ও টেক্সটাইল মেশিনারিজ প্রদর্শনী। রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) টেক্সটাইল ও গার্মেন্ট মেশিনারিজ নিয়ে আয়োজিত এ মেলার শেষ দিনেও ছিল জমজমাট। দেশি-বিদেশি উদ্যোক্তা, ব্যবসায়ী, বিশেষজ্ঞরা অংশগ্রহণ করেন এ মেলায়। গতকাল গিয়ে দেখা গেছে হাজার হাজার দর্শনার্থীর পদচারণায় মুখরিত মেলা প্রাঙ্গণ। দর্শনার্থীরা ঘুরে ঘুরে দেখছেন বিশ্বের আধুনিক প্রযুক্তির মেশিনারিজ। মেলায় সারা দেশ থেকেই এসেছেন উদ্যোক্তারা। যারা ছোট কারখানা করতে চান-৫ থেকে ১০ লাখ টাকা ব্যয়ে কারখানা নির্মাণের সব ধরনের উপকরণ রয়েছে এ মেলায়। রয়েছে বৃহৎ আকারের কারখানা করার প্রযুক্তিও। সবার আগ্রহ প্রযুক্তিনির্ভর মেশিনারিজের স্থায়িত্ব ও উৎপাদন ক্ষমতা নিয়ে। স্টলকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দরদামের সঙ্গে ব্যবহার সহজ কিনা সেসব সম্পর্কেও সবাই জানতে চাচ্ছে। মেলায় এসে বিশেষজ্ঞ, উদ্যোক্তাদের মধ্যে সরাসরি যোগাযোগ হয়েছে। পোশাক শিল্পের মেশিনারিজ এবং এর সহায়ক পণ্যের দুটি আলাদা প্রদর্শনীতে ৩৭টি দেশের ১২০০ কোম্পানি অংশ নিয়েছে মেলায়। এ মেলায় যেসব মেশিন উঠেছে তার বেশির ভাগই  রোবটিক। হাতের মাধ্যমে কোনো কাজ হবে না। যা করার সবই করবে মেশিন। ফলে একজন শ্রমিক যখন ঘণ্টায় ১০টি কাপড়  তৈরি করবে তখন একই সময়ে মেশিন তৈরি করবে ২০টি। এ ছাড়াও এসব মেশিন শ্রমিক সাশ্রয় করবে। ফলে একই কাজের অন্য মেশিন চালাতে পাঁচজন শ্রমিকের প্রয়োজন হলেও অটোমেটিক এসব মেশিনের তা প্রয়োজন হবে না। কোনো শ্রমিক ছাড়াই শুধু কম্পিউটার ডিজাইন দিয়ে নির্দেশনা দিলেই কাজ করবে ঘণ্টার পর ঘণ্টা। মেলায় যেসব মেশিন এসেছে, তার সবগুলোই আপডেট ও আধুনিক প্রযুক্তি সমৃদ্ধ। মেলায় বিভিন্ন মেশিনারিজ কোম্পানিগুলোর সঙ্গে সেসব  কোম্পানির সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও প্রকৌশলীরা এসেছেন।  কোম্পানির প্রকৌশলীরা মেলায় আসা গার্মেন্ট কোম্পানির মালিক ও টেকনিশিয়ানদের মেশিন পরিচিতি ও নানা বিষয়  বুঝিয়ে দিচ্ছেন।

প্রতিটি স্টলে কর্মীদের সঙ্গে কথা বলছেন তারা। জেনে নিচ্ছেন মেশিনারিজের দাম থেকে শুরু করে ব্যবহার, উৎপাদন ক্ষমতা থেকে খুঁটিনাটি সব বিষয়।


আপনার মন্তব্য