শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২০ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ এপ্রিল, ২০২০ ২৩:৫০

পেটে বিএসএফের গুলি, বাংলাদেশি ছাত্রের মৃত্যু

পঞ্চগড় প্রতিনিধি

পঞ্চগড় সদর উপজেলার সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষীর (বিএসএফ) গুলিতে শিমুন রায় নামের এক ছাত্র নিহত হয়েছে। সে সদর উপজেলার রতনীবাড়ি প্রধানপাড়া গ্রামের পরেশ চন্দ্র রায়ের ছেলে ও এসএসসি পরীক্ষার্থী।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে বর্ডার গার্ড অব বাংলাদেশ (বিজিবি) জানায়, গতকাল বিকালে শিমুন রায়সহ  কয়েকজন নিজেদের পাটক্ষেত জাল দিয়ে বেড়া দিচ্ছিল। এ সময় ভারতের খয়েরবাড়ী সীমান্ত ফাঁড়ির টহলরত বিএসএফ সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে বেড়া দিতে নিষেধ করেন। এ নিয়ে বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে এক বিএসএফ সদস্য শিমুনকে খুব কাছে থেকে পেটে গুলি করে চলে যায়। খবর পেয়ে এলাকাবাসী ওই কিশোরকে উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। পরে সেখান থেকে তাকে রংপুর মেডিকেলে পাঠানো হলে তার মৃত্যু হয়। এ বিষয়ে বিজিবির নীলফামারী ৬৫ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মামুনুল হক বলেন, ‘আমরা খবর পেয়ে বিএসএফের বক্তব্য নেওয়ার  চেষ্টা করছি। এ ঘটনায় বিএসএফকে প্রতিবাদপত্র পাঠিয়ে পতাকা বৈঠকের আহ্বান জানানোর প্রক্রিয়া চলছে। পতাকা বৈঠকের পর প্রকৃত তথ্য জানানো যাবে।’ পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক  মেডিকেল অফিসার ডা. সিরাজউদ্দৌলা পোলিন বলেন, ‘ওই ছাতকে পেটে গুলিবিদ্ধ অব্স্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছিল। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রংপুর  মেডিকেলে পাঠানো হয়।’


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর