শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ জুলাই, ২০২০ ০০:৪৫

আগস্টে সোনিয়ার মেয়াদ শেষ, সভাপতি হবেন কি রাহুল?

নয়াদিল্লি প্রতিনিধি

আগস্টে সোনিয়ার মেয়াদ শেষ, সভাপতি হবেন কি রাহুল?

আর মাসখানেকও বাকি নেই। ১০ আগস্ট জাতীয় কংগ্রেসের অন্তর্বর্তীকালীন সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর এক বছরের মেয়াদ উত্তীর্ণ হচ্ছে। কিন্তু তারপর দলের হাল কে ধরবেন? তবে এখন থেকেই দলের শীর্ষ নেতারা রাহুল গান্ধীকেই সভাপতি করার দাবিতে সোচ্চার হয়েছেন। লোকসভা ভোটের পরে দলের বিপর্যয়ের জন্য নৈতিক দায়িত্ব নিয়ে রাহুল গান্ধী সভাপতি পদ থেকে ইস্তফা দেন। তিনি চিঠি দিয়ে জানিয়েছিলেন, গান্ধী পরিবারের বাইরে কাউকে সভাপতি করা হোক। কংগ্রেস দল কোনো সিদ্ধান্ত না নিতে পেরে সোনিয়া গান্ধীকেই এক বছরের জন্য সভাপতি করে। রাহুল গান্ধী বারবার বলছেন তিনি সভাপতি হবেন না। তা সত্ত্বেও দলের শীর্ষ নেতা থেকে শুরু করে তরুণরা রাহুল গান্ধীর জন্য প্রকাশ্যে দাবি তুলেছেন। সম্প্রতি সোনিয়া গান্ধী দলের সংসদ সদস্যদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করেন। তখন বর্ষীয়ান নেতা ও মধ্যপ্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী দিগি¦জয় সিং রাহুল গান্ধী কেন ইস্তফা দিলেন তাই নিয়ে প্রশ্ন তোলেন এবং বলেন, আবার রাহুল গান্ধীকেই দায়িত্ব দেওয়া হোক। রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট, ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী এস বাঘেল ও পাঞ্জাবের কংগ্রেস মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দার সিংও একই দাবি তুলেছেন। যুবা সাংসদদের মধ্যে গৌরব গোগৌই, মানিক রাও টেগোর, কে সুরেশরাও একই দাবিতে সোচ্চার। কংগ্রেসের মধ্যে এ দাবি নতুন নয়। গত মাসে দলের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারক কমিটির বৈঠকে একই দাবি উঠেছিল। সোনিয়া গান্ধীও বলেছিলেন, এ সিদ্ধান্ত রাহুলকেই নিতে হবে। তিনি সভাপতি পদ গ্রহণে রাজি এমন কোনো ইঙ্গিত মেলেনি। ফলে আগামী মাসে ভারতের সব থেকে পুরনো রাজনৈতিক দলের সভাপতি কে হন, তাই নিয়ে কৌতূহল তৈরি হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর