শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০৮

বাধা উপেক্ষা করে মিয়ানমারে বিক্ষোভ

প্রতিদিন ডেস্ক

মিয়ানমারে সামরিক জান্তার গুলি, টিয়ারশেলসহ সব রকম প্রতিরোধ ভেঙে সামরিক শাসনবিরোধী গণবিক্ষোভ আরও জোরদার হয়েছে। মঙ্গলবার বিক্ষোভে গুলিবর্ষণের পর গতকাল সকাল থেকে হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে পড়েন। এদিকে সেনাবাহিনী আগের রাতে অং সান সু চির দল এনএলডির প্রধান কার্যালয়ে অভিযানও চালিয়েছে। সূত্র : রয়টার্স, বিবিসি 

খবরে বলা হয়, সামরিক অভ্যুত্থানের পর গত মঙ্গলবার ছিল সবচেয়ে সহিংস দিন। এদিন রাজধানী নেপিদোতে বিক্ষোভে গুলি চালায় দেশটির পুলিশ। এ সহিংস ঘটনার পর গতকাল সকাল থেকেই নেপিদোর রাস্তায়  নেমে পড়েন বিক্ষোভকারীরা। বিক্ষোভে অংশ নেওয়া যুবনেতা এস্টার জে নাও সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা চুপ থাকতে পারি না। আমাদের শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভের সময়ই যদি রক্তপাত হয়, তাহলে আমরা তাদের (সেনাবাহিনী)  দেশটি দখল করতে দিলে আরও অনেক কিছুই হবে।’ এদিকে বিক্ষোভকারীদের অসহযোগের ডাকে সাড়া দিয়ে শত শত সরকারি কর্মচারী গতকাল রাজধানীতে মিছিল করেন। এতে যোগ দেন চিকিৎসক, শিক্ষক, রেলকর্মীসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ। নেপিদো ছাড়াও বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ হয়। অন্যান্য স্থানের বিক্ষোভেও শক্তি প্রয়োগের খবর পাওয়া  গেছে। সেসব জায়গায়ও বিক্ষোভকারীরা আহত হয়েছেন। মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে পুলিশের আহত হওয়ার কথা জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, বিক্ষোভকারীদের ছোড়া ইটপাটকেলে পুলিশ আহত হয়েছে। প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার নেপিদোতে বিক্ষোভকালে পুলিশের গুলিতে আহত এক বিক্ষোভকারীর অবস্থা গুরুতর। এক চিকিৎসক বলেছেন, এই বিক্ষোভকারীর মাথায় আঘাত রয়েছে। তার বাঁচার সম্ভাবনা ক্ষীণ।

গুরুতর আহত এই বিক্ষোভকারী একজন নারী। চিকিৎসকরা বলেছেন, এক্সরে করে দেখা গেছে, এই নারী বিক্ষোভকারী গুলিতে আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত আরও তিনজনকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। পুলিশের ছোড়া রাবার বুলেটে তারা আহত হয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। এদিকে মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর  ডেমোক্র্যাসির (এনএলডি) প্রধান কার্যালয়ে অভিযান চালিয়েছে দেশটির সামরিক জান্তা। গতকাল গভীর রাতে এনএলডির প্রধান কার্যালয়ে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী অভিযান চালায় বলে দলটির পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে। রাতে দেশজুড়ে কারফিউ চলাকালে সেনাবাহিনী এ অভিযান চালায়। তারা কার্যালয়ের ফটক ভেঙে ভিতরে ঢোকে। অভিযানকালে এনএলডির প্রধান কার্যালয়ের ভিতরে দলটির কোনো সদস্য ছিলেন না।


আপনার মন্তব্য