শিরোনাম
প্রকাশ : ৩ জুন, ২০২০ ১০:১২

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে যেভাবে খাবেন কাঁচা হলুদ

অনলাইন ডেস্ক

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে যেভাবে খাবেন কাঁচা হলুদ
প্রতীকী ছবি

দীর্ঘদিন ধরে রান্নায় মশলা হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে হলুদ। কিন্তু মশলা ছাড়াও কাঁচা হলুদের রয়েছে নানা উপকারিতা। হলুদের গুঁড়ার পাশাপাশি কাঁচা হলুদও সমান উপকারী। হালকা গরম দুধ, পানি বা চায়ের সাথে কাঁচা হলুদ খেলে তা ঠান্ডা ও ফ্লু প্রতিরোধে সহায়তা করে। এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা করে। 

পাবলিক লাইব্রেরি অব সায়েন্সের জার্নালে প্রকাশিত একটি সমীক্ষা অনুসারে, হলুদে থাকা কারকিউমিনের মধ্যে রয়েছে প্রদাহ প্রতিরোধী বৈশিষ্ট্য। এটি প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা করতে পারে বলে জানা যায়। হলুদে অ্যান্টি-ভাইরাল, অ্যান্টি-ফাঙ্গাল এবং অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য রয়েছে এবং অন্ত্রে স্বাস্থ্যকর ব্যাকটেরিয়া বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

হলুদের আরও কিছু উপকারিতা:
হলুদে বিটা ক্যারোটিন, অ্যাসকরবিক অ্যাসিড, ক্যালসিয়াম, ফাইবার, আয়রণ, নিয়াসিন, পটাসিয়াম, দস্তা, ফ্ল্যাভোনয়েডস এবং অন্যান্য পুষ্টি সহ তিনশোরও বেশি পুষ্টি রয়েছে। তবে বিশ্বব্যাপী বিজ্ঞানীদের দৃষ্টি আকর্ষণকারী সর্বাধিক সক্রিয় যৌগটি হলো কারকিউমিন।

হলুদ খাওয়ার সেরা উপায়:
কালো গোল মরিচের গুঁড়ার সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে খেলে এর উপকারিতা অনেকাংশে বেড়ে যায়। তাই চেষ্টা করুন কাঁচা হলুদের সঙ্গে গোল মরিচ মিশিয়ে খেতে।

হলুদ খাওয়া শুরু করার দুটি সহজ উপায়:
এক ইঞ্চি কাঁচা হলুদ এবং এক চা চামচ ঘি মিশিয়ে নিন। আপনার যদি অবিরাম শুকনো কাশি হয় তবে এটি প্রতিদিন খান।

দুধের সঙ্গে হলুদ ফুটিয়েও পান করতে পারেন। এটি অত্যন্ত উপকারী। কারণ এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর পাশাপাশি আরও অনেক স্বাস্থ্য সুবিধা দেয়। বিশেষ করে শ্বাসনালীর সংক্রমণে আক্রান্তদের হলুদ দুধ খাওয়া উচিত, যাকে গোল্ডেন মিল্কও বলা হয়। বিভিন্ন রোগের চিকিৎসার ক্ষেত্রেও হলুদ উপকারী হিসাবে পরিচিত।

এছাড়াও হজমের সমস্যা দূর করতে কাঁচা হলুদ খেতে পারেন। এতে প্রাকৃতিক অ্যান্টি-সেপ্টিক হিসেবে এটি ঠাণ্ডা-জ্বর থেকে দূরে রাখবে। কাঁচা হলুদ রক্তের দূষিত উপাদান বের করতে সক্ষম। ত্বক সুন্দর ও উজ্জ্বল রাখতে এর জুড়ি নেই।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর