শিরোনাম
প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ২০:৫১
আপডেট : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ২০:৫৭
প্রিন্ট করুন printer

পাথরঘাটায় দুই মেয়র প্রার্থীর সমর্থকদের ব্যাপক সংঘর্ষ, আহত ২০

বরগুনা প্রতিনিধি:

পাথরঘাটায় দুই মেয়র প্রার্থীর সমর্থকদের ব্যাপক সংঘর্ষ, আহত ২০

বরগুনার পাথরঘাটা পৌরসভার নির্বাচনে নৌকা ও স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী নারিকেল গাছ প্রতীকের সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। আজ বেলা ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। 

এতে পাথরঘাটা থানার ওসি সাহাবুদ্দিন, ৫ পুলিশ সদস্য, স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী সোহেল, ২ সাংবাদিকসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। ইটের আঘাতে আহত ওসিসহ পুলিশ সদস্যদের পাথরঘাটা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। তবে মেয়র প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান সোহেলকে আহতাবস্থায় পুলিশ থানায় নিয়ে যায়। 

পাথরঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) সাঈদ আহমেদ জানান, আহত হবার কারণে সোহেলকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। এখনও অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বেলা ৩টার দিকে মেয়র প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান সোহেলের কর্মীরা গণসংযোগের জন্য তার বাসায় সমবেত হয়। এসময় পুলিশ, র‍্যাব, ডিবিসহ শতাধিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনির সদস্য সোহেলের বাসার সামনে অবস্থান নেয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপস্থিত হয়ে আচরণবিধি ভঙ্গ না করার জন্য তাদের অনুরোধ করেন। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সাথে বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে র‍্যাবের গাড়ি লক্ষ করে ইট ছুড়লে গাড়ির সামনের গ্লাস ফেটে যায়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় মেয়র প্রার্থী সোহেল তার ৭/৮জন কর্মী নিয়ে লিপলেট বিতরণ করে বনবিভাগের সামনে রাস্তায় এলে হঠাৎ করে আওয়ামী লীগ কর্মীরা ইটপাটকেল ছুড়তে শুরু করে। সংবাদ পেয়ে সোহেলের শতাধিক কর্মী লাঠিশোটা নিয়ে পাল্টা হামলা করে। আওয়ামী লীগ কর্মীরা আরও সংগঠিত হয়ে পাল্টা হামলা করলে দু'পক্ষের সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ টিয়ারসেল ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। আওয়ামী লীগ কর্মীরা এসময় শহরের সাংবাদিক সুমনের টেলিকম দোকানে হামলা করে ভিডিও ক্যামেরা, ল্যাপটপ ভাঙচুর করাসহ সোহেলের বাসায় ভাঙচুর করে। 

পাথরঘাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা সাবরিনা বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রযেছে। কোন পক্ষ থেকে নির্বাচনী আচরণবিধ লংঘনের অভিযোগ আমরা পাইনি।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর