শিরোনাম
প্রকাশ : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২১:১৬
আপডেট : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২১:১৮
প্রিন্ট করুন printer

মাদারীপুরে ফলাফল ঘোষণাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত ১২

মাদারীপুর প্রতিনিধি:

মাদারীপুরে ফলাফল ঘোষণাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত ১২
প্রতীকী ছবি

মাদারীপুরের ৫নং ওয়ার্ডের আল-জাবির হাই স্কুল কেন্দ্রে কাউন্সিলর প্রার্থীর ফলাফল ঘোষণাকে কেন্দ্র করে প্রিজাইডিং অফিসারকে অবরুদ্ধ করে বিক্ষোভ করে পাঞ্জাবি মার্কার কাউন্সিলর প্রার্থী ইব্রাহিম কালুর সমর্থকরা। এসময় নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সকল সরঞ্জামও আটকা পড়ে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে তিন পুলিশসহ কমপক্ষে ১২জন আহত হয়েছে।

পরবর্তীতে ৪৫ মিনিটর পর বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশের একাধিক দল ঘটনাস্থলে এসে প্রিজাইডিং অফিসার এবং নির্বাচনের সরঞ্জাম উদ্ধার করে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এজেন্টের ভুল তথ্য দেয়ায় পাঞ্জাবি মার্কার প্রার্থী ইব্রাহিম কালু বিজয়ী হয়েছে বলে উল্লাস করতে থাকে তার সমর্থকরা। পরবর্তীতে এই কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষণা করলে দেখা যায়, এই ওয়ার্ডে উট পাখি মার্কার প্রার্থী রেজাউল কমির বিজয়ী হয়। এতে ইব্রাহিম কালুর সমর্থকরা ফলাফল কারচুপির অভিযোগ এনে নির্বাচনের সরঞ্জামসহ প্রিজাইডিং অফিসারকে অবরুদ্ধ করে। এসময় চারিদিকে প্রচার হয় যে ম্যাজিষ্ট্রেট ও প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে আটকে রেখেছে ইব্রাহিম কালুর সমর্থক শতশত নারী ও পুরুষ। এর ঘটনার ৪৫ মিনিট পরে বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশের একাধিক দল ঘটনাস্থলে এসে প্রিজাইডিং অফিসার এবং নির্বাচনের সরঞ্জাম উদ্ধার করে। বর্তমানে আল-জাবির হাই স্কুল কেন্দ্র এলাকা থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী ইব্রাহিম কালুর সমর্থকদের দাবি প্রিজাইডিং কর্মকর্তা প্রথমে উট পাখি মার্কার প্রার্থীকে ২১৫ ভোট ঘোষণা করেন। পরবর্তীতে এক ঘণ্টা পর প্রিজাইডিং অফিসার একই প্রার্থীকে ২৯৫ ভোট পেয়েছে বলে ফলাফল ঘোষণা করে। 

মাদারীপুর সদর থানার ওসি কামরুল হাসান মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর