শিরোনাম
প্রকাশ : ২৩ জুন, ২০২১ ২০:২৮
প্রিন্ট করুন printer

আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সাতক্ষীরায় প্রধানমন্ত্রীর ‍উপহার দিলেন ড. কাজী এরতেজা হাসান

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সাতক্ষীরায় প্রধানমন্ত্রীর ‍উপহার দিলেন ড. কাজী এরতেজা হাসান
Google News

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাতক্ষীরা জেলা কমিটির সহ-সভাপতি হিসেবে দলের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সাতক্ষীরার নিম্ন আয়ের মানুষদের মাঝে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার তুলে দিয়েছেন ভোরের পাতা সম্পাদক ও প্রকাশক, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের শিল্প বাণিজ্যবিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য এবং এফবিসিসিআই পরিচালক ড. কাজী এরতেজা হাসান, সিআইপি।

আজ বুধবার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে নিজ পিতা মাতার নামে প্রতিষ্ঠিত আজিজা মান্নান ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত অসহায়, হতদরিদ্র পরিবারে বাড়ি বাড়ি খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেন তিনি।

উপহার পেয়ে করোনা আক্রান্ত আব্দুল মজিদ নামের একজন শ্রমজীবী বলেন, মানবতার অপর এক নাম ড. কাজী এরতেজা হাসান। বিভিন্ন দুর্যোগের সময়ে তিনি সাতক্ষীরার মানুষের জন্য কিছু করার চেষ্টা করেছেন। সাতক্ষীরার মানুষ কিভাবে ভালো থাকবে, সেটাই যেন তার একমাত্র চিন্তা। 

এ ব্যাপারে সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, দৈনিক ভোরের পাতা ও দ্যা ডেইলী পিপলস্ টাইম পত্রিকার সম্পাদক, ভোরের পাতা গ্রুপের চেয়ারপার্সন, ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক ড.কাজী এরতেজা হাসান বলেন, সাতক্ষীরা আমার জন্মভূমি। এ মাটির প্রতি আমার দায় রয়েছে। সাতক্ষীরার মানুষের জন্য আমার মন কাঁদে। আমার সাধ্যের মধ্যে থেকে যতটুকু সম্ভব করে যাচ্ছি, সব সময় করবো ইনশাআল্লাহ। 

তিনি আরও বলেন, মানুষকে সহযোগিতা করা এটা আমার পারিবারিক শিক্ষা, বাবা-মায়ের কাছ থেকে আমি শিখেছি। জননেত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে যে কর্মসূচি হাতে নিয়েছি তা সফলভাবে সম্পন্ন করতে সকলের নিকট সহযোগিতা ও দোয়া চাই।

এ বিষয়ে সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম এই কর্মসূচি ভার্চুয়ালে উদ্বোধন করে বলেন, ড.কাজী এরতেজা হাসানের এই মহতী উদ্যোগকে স্বাগত জানায়। এই দুর্দিনে অসহায় হতদরিদ্র মানুষের পাশে মানবতার সেবাই কাজ করে যাচ্ছেন। মানুষ তাকে সারাজীবন মনে রাখবে। আমি তার সাফল্য ও মঙ্গল কামনা করি।

সাবেক ছাত্রনেতা ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা উপ-কমিটির সদস্য, ভোরের পাতা গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান কাজী হেদায়েত হোসেন রাজ জানান, আজিজা মান্নান ফাউন্ডেশন আমরা সৃষ্টি করেছি। বাবা-মায়ের স্মৃতিকে ধরে রাখার জন্য। সমাজে যত মানবিক কর্মকাণ্ড পরিচালিত হবে আমরা এই ব্যানারে করবো। আমার ছোট ভাই ড. কাজী এরতেজা হাসান ছোটবেলা থেকেই মানুষকে উপকার করা এবং তার সাধ্যানুযায়ী অসহায়, সাধারণ মানুষের সুখ-দুঃখে পাশে থাকার চেষ্টা করে। 

তিনি আরও বলেন, আমার বিশ্বাস মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন অবশ্যই একদিন তার লক্ষ্যে পৌঁছাবেন এবং সমাজ ও দেশ জাতি উপকৃত হবে। ইনশাআল্লাহ।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত

এই বিভাগের আরও খবর