২৭ জানুয়ারি, ২০২২ ২২:২২

সংসদের ১৬তম অধিবেশন সমাপ্ত : রাষ্ট্রপতির ভাষণ সম্পর্কে আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাব গৃহীত

অনলাইন ডেস্ক

সংসদের ১৬তম অধিবেশন সমাপ্ত : রাষ্ট্রপতির ভাষণ সম্পর্কে আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাব গৃহীত

ফাইল ছবি

রাষ্ট্রপতির ভাষণ সম্পর্কে আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাব গ্রহণ করে আজ একাদশ জাতীয় সংসদের ১৬তম অধিবেশন সমাপ্ত হয়েছে।

অধিবেশন সমাপ্তি সংক্রান্ত রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের ঘোষণা পাঠ করার মাধ্যমে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী আজ এ অধিবেশন সমাপ্তির ঘোষণা দেন।  

এর আগে ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারী পাকিস্তান কারাগার থেকে মুক্ত হয়ে আসার পর ভারতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে দেয়া সংবর্ধনা ও সেখানে তার দেয়া ভাষণের অডিও-ভিডিও প্রদর্শন করা হয়।
গত ১৬ জানুয়ারি থেকে ৫ কার্যদিবস পর্যন্ত অধিবেশন চলার পর আজ ২৭ জানুয়ারি জাতীয় সংসদের চলতি অধিবেশন শেষ হয়। 

বছরের প্রথম অধিবেশন হিসাবে সংবিধান অনুযায়ি রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ গত ১৬ জানুয়ারি সংসদে ভাষণ দেন। এর পর দিন ১৭ জানুয়ারি রাষ্ট্রপতির ভাষণ সম্পর্কে চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী সংসদে ধন্যবাদ প্রস্তাব উত্থাপন করলে সরকারি দলের সদস্য শামসুল হক টুকু তা সমর্থন করেন। এরপর ঐদিন ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর রীতি অনুযায়ি আলোচনা শুরু হয়। আজ পর্যন্ত চার কার্যদিবসের আলোচনায় সরকারি ও বিরোধী দলের ৫৪ জন সংসদ সদস্য অংশগ্রহণ করেন এবং মোট ৯ ঘন্টা ৩০ মিনিট আলোচনা হয়। 

এ অধিবেশনে গুরুত্বপূর্ণ প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং অন্যান্য নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ বিল, ২০২২ সর্বসম্মতিক্রমে পাস হয়। এ অধিবেশনে ৩টি স্থায়ী কমিটির রিপোর্ট উপস্থাপিত হয়।

এ অধিবেশনে আইন প্রণয়ন সম্পর্কিত কাজ সম্পাদনের পাশাপাশি কার্যপ্রণালী-বিধির ৭১ বিধিতে ৩২টি নোটিশ পাওয়া গিয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর উত্তর দানের জন্য সর্বমোট ৫২ টি প্রশ্ন পাওয়া যায়, এগুলোর মধ্যে তিনি ২০টি প্রশ্নের উত্তর দেন। মন্ত্রীদের উত্তরদানের জন্য প্রাপ্ত মোট ১ হাজার ৪৭৬টি প্রশ্নের মধ্যে মন্ত্রীগণ ২৯০টি প্রশ্নের জবাব দেন। এছাড়া বিদেশে লবিস্ট নিয়োগ বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন সংসদে ৩০০ বিধিতে বিবৃতি দেন।  

অধিবেশনে সমাপনী ভাষণে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী গভীর শ্রদ্ধাভরে  স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্মরণ করেন। ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লক্ষ শহীদ এবং সম্ভ্রম হারানো ২ লক্ষ মা-বোনকে স্মরণ করেন। ’৫২ এর ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে সকল গণতান্ত্রিক আন্দোলনে জীবন উৎসর্গকারী বীরযোদ্ধাসহ ’৭৫ এর ১৫ আগস্ট নিহত বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছাসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের এবং বিভিন্ন গণতান্ত্রিক আন্দোলনে সকল শহীদকে স্মরণ করেন। তিনি  শ্রদ্ধার সাথে  জেলখানায় নিহত জাতীয় চার নেতাকে স্মরণ করেন। 

রাষ্ট্র পরিচালনায় সঠিক দিক নির্দেশনা, গতিশীল নেতৃত্ব এবং বাংলাদেশের জন্য গৌরব ও সম্মান বয়ে আনার জন্য তিনি সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সশ্রদ্ধ অভিনন্দন জানান। 

তিনি ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বি মিয়া এবং বিরোধী দলের নেতা বেগম রওশন এরশাদসহ দেশ-বিদেশে করোনা আক্রান্তদের সুস্থ্যতা কামনা করেন।

সংসদ পরিচালনায় সহায়তা প্রদানের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে তিনি ধন্যবাদ জানান।

এরপর স্পিকার অধিবেশনের সমাপ্তি সংক্রান্ত রাষ্ট্রপতির আদেশ পাঠ করার মধ্য দিয়ে অধিবেশন সমাপ্তি ঘোষণা করেন।-বাসস

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর