শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২০ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ মার্চ, ২০২০ ২৩:৫৭

পিটিআইতে যৌন হয়রানির প্রতিবেদন

প্রশিক্ষণার্থীদের ইঙ্গিতপূর্ণ বাজে আচরণ, হাত স্পর্শ করার অভিযোগ প্রমাণিত

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

প্রশিক্ষণার্থীদের ইঙ্গিতপূর্ণ বাজে আচরণ, হাত স্পর্শ করার অভিযোগ প্রমাণিত

চট্টগ্রামের পটিয়ায় প্রাইমারি টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের (পিটিআই) চার শিক্ষকের বিরুদ্ধে ‘নারীদের প্রতি ইঙ্গিতপূর্ণ বাজে আচরণ, মৌখিকভাবে যৌন হয়রানি, নারী প্রশিক্ষণার্থীদের হাত স্পর্শ করার অভিযোগ প্রমাণিত হয়’ বলে মতামতে বলা হয়। পিটিআই’র চার শিক্ষকের বিরুদ্ধে ওঠা যৌন হয়রানির অভিযোগে গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়। এ ঘটনায় গঠিত তদন্ত প্রতিবেদন গতকাল জেলা প্রশাসক বরাবরে জমা দেওয়া হয়েছে। চট্টগ্রাম জেলা  প্রশাসনের গঠিত ‘চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া উপজেলাধীন প্রাইমারি টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউট এ নারী প্রশিক্ষণার্থীদের হয়রানির অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত’ শীর্ষক আট পৃষ্ঠার তদন্ত প্রতিবেদনে ১১টি সুপারিশ এবং একটি মতামত দেওয়া হয়। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আবু হাসান সিদ্দিক এ কমিটির প্রধান। এ ঘটনায় অভিযুক্তরা হলেন শরীর চর্চার প্রশিক্ষক ফারুক হোসেন, চারু ও কারুকলার সবুজ কান্তি আচার্য, সাধারণ বিভাগের জসিম উদ্দিন ও আইটির রবিউল ইসলাম। চট্টগ্রাম প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের উপপরিচালক সুলতান মিয়া বলেন, পিটিআইর অভিযুক্ত চার প্রশিক্ষককে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আর কোনো করণীয় আছে কিনা জানতে চেয়ে মন্ত্রণালয়ের মতামত চাওয়া হয়েছে। তবে অভিযুক্তরা বলেন, ‘ব্যক্তিগত আক্রোশের কারণে তিনি এমন অভিযোগ করেছেন। ফেসবুকে মিথ্যা অভিযোগ করে মানহানি করা হয়েছে। আমরা এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেব।’


আপনার মন্তব্য