শিরোনাম
বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ টা

অদ্ভুতুড়ে রেফারিংয়ে ক্ষুব্ধ অস্কার

‘আমাদের বিপক্ষে পেনাল্টির সিদ্ধান্তটা যদি ফেয়ার হতো তাহলে আমার কিছু বলার ছিল না। কিন্তু এটা কোনোভাবেই পেনাল্টি হতে পারে না।।’

ক্রীড়া প্রতিবেদক, মালদ্বীপ থেকে

সাফ ফুটবল শুরুর দিন কয়েক আগে হঠাৎ করেই এক বৈপ্লবিক সিদ্ধান্ত নেয় বাফুফে। কোচ জেমি ডে’র ডিফেন্সিভ মানসিকতাকে বাদ দিয়ে স্প্যানিশ কোচ অস্কার ব্রুজোনের আক্রমণাত্মক ফুটবলকে গ্রহণ করে তারা। এই সিদ্ধান্ত ছিল অনেকটা বাজি ধরার মতোই ব্যাপার। অনেক ভেবে চিন্তে চ্যালেঞ্জটা গ্রহণ করেন বসুন্ধরা কিংসকে টানা দুবার লিগ শিরোপা উপহার দেওয়া অস্কার ব্রুজোন। ম্যাচ বাই ম্যাচ খেলে ফাইনাল খেলার লক্ষ্য নির্ধারণ করেন তিনি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জয় ও ভারতের সঙ্গে ড্রয়ের পর দীর্ঘ ১৬ বছর পর সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে ফাইনাল খেলার দারুণ সম্ভাবনা জেগে উঠে বাংলাদেশের সামনে। কিন্তু মালদ্বীপের কাছে পরাজয় এবং নেপালের সঙ্গে ড্র করে বিদায় নিয়েছে বাংলাদেশ।

কোচ অস্কার ব্রুজোন অবশ্য বাংলাদেশকে বিদায় করা হয়েছে বলেই মন্তব্য করলেন। গতকাল সংবাদ সম্মেলনে এসে বললেন, ‘আমাদের বিপক্ষে পেনাল্টির সিদ্ধান্তটা যদি ফেয়ার হতো তাহলে আমার কিছু বলার ছিল না। কিন্তু এটা কোনোভাবেই পেনাল্টি হতে পারে না। আমরা সম্ভবত কোনো ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছি।’ ম্যাচের ৮৭তম মিনিটে ডি বক্সের ভিতরে বিশ্বনাথ ও সাদ উদ্দিনের মাঝখানে দাঁড়িয়ে থাকা অঞ্জন বিস্তা নিজ থেকেই মাটিতে পড়ে যান। এতেই পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়ে দেন উজবেক রেফারি। টুর্নামেন্টজুড়েই বাংলাদেশের বিপক্ষে অনেক সিদ্ধান্ত ভুল ছিল বলে মনে করেন অস্কার ব্রুজোন।

অস্কার ব্রুজোন সংবাদ সম্মেলনে এসে জামালদের অবস্থাও জানালেন। বললেন, ‘ড্রেসিং রুমে সব ফুটবলাররাই কাঁদছে।’ অস্কারের মতে, ফাইনাল খেলার জন্য নিজেদের সেরাটা দিয়েই চেষ্টা করেছেন ফুটবলাররা। ফুটবলার রাকিবও বললেন, ‘সবাই খেলা দেখেছে। সিদ্ধান্তটা সঠিক থাকলে আমরা মেনে নিতাম।’ এই রাকিবের ভুলেই লাল কার্ড দেখতে হয় আনিসুর রহমান জিকোকে।

সর্বশেষ খবর