শিরোনাম
২৮ নভেম্বর, ২০২২ ২২:৪৯

ব্রাজিল-সুইজারল্যান্ডের গোলশূন্য প্রথমার্ধ

অনলাইন ডেস্ক

ব্রাজিল-সুইজারল্যান্ডের গোলশূন্য প্রথমার্ধ

গ্রুপের বড় ম্যাচে ব্রাজিল ও সুইজারল্যান্ড মুখোমুখি হয়েছে।

জয়ী দলের শেষ ষোলো নিশ্চিত হবে এমন ম্যাচে সোমবার বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় দোহার স্টেডিয়াম ৯৭৪ এ মাঠে নামে দুই দল।

প্রথমার্ধে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে খেলে ব্রাজিল ও সুইজারল্যান্ড। তবে কোনো গোল না হলে গোলশূন্য সমতায় থেকে বিরতিতে যায় দুই দল।

ম্যাচের তৃতীয় মিনিটে বাম প্রান্তে ফাউলের শিকার হন ভিনিসিয়াস জুনিয়র। তবে ফ্রি কিক কাজে লাগাতে পারেনি ব্রাজিল। ম্যাচের ৫ মিনিটে ডিফেন্সের ভুলে বিপদের সম্ভাবনা তৈরি হলে তা ক্লিয়ার করে দেন মার্কুইনহোস। ম্যাচের ৬ মিনিটে কর্নার পায় সুইজারল্যান্ড। তবে তা কাজে লাগাতে পারেনি তারা।

ম্যাচের ১২ মিনিটে কাউন্টার অ্যাটাক থেকে গোলের ভালও সুযোগ তৈরি করলেও তা আটকে দেন সুইস ডিফেন্ডাররা। ম্যাচের ১৪ মিনিটে ফাউল করলে ফ্রি কিক পায় সুইজারল্যান্ড। তবে ফ্রি কিক থেকে সুবিধা করতে পারেনি সুইসরা। ম্যাচের ১৯ মিনিটে বাম দিক থেকে পাকুয়েতার ক্রস থেকে পা ছোঁয়াতে ব্যর্থ হলে গোল বঞ্চিত হয় ব্রাজিল। 

ম্যাচের ২১ মিনিটে আবারও সুযোগ আসে ব্রাজিলের সামনে তবে তা থেকে কোন বিপদ ঘটাতে পারেনি তারা। ম্যাচের ২৩ মিনিটে অ্যাটাকে যায় সুইজারল্যান্ড। কিন্তু তা আটকে যায় ব্রাজিল ডিফেন্সে। ম্যাচের ২৭ মিনিটে ডান প্রান্ত থেকে রাফিনহার বাড়ানো বলে পা ছোঁয়ান ভিনিসিয়াস জুনিয়র। তবে তা অসাধারণ সেভে দলকে রক্ষা করেন সুইস গোলরক্ষক ইয়ান সোমার। 

ম্যাচের ৩০ মিনিটে গুছিয়ে আক্রমণে যায় ব্রাজিল। ডি বক্সের বাইরে থেকে রাফিনহার নেওয়া শট নিজের গ্লোভসে নেন সোমার। ম্যাচের ৩২ মিনিটে গুছিয়ে আক্রমণে গেলেও গোলমুখে শট করতে ব্যর্থ হয় ব্রাজিল। সেখান থেকে কাউন্টার অ্যাটাকে যায় সুইজারল্যান্ড। তবে তা আটকে দেন এডার মিলিতাও। ম্যাচের ৩৭ মিনিটে গোছানো আক্রমণ থেকে ডি বক্সের বাইরে থেকে গোলমুখে শট করে এডার মিলিতাও। তবে তা ডিফেন্ডারদের গায়ে লেগে প্রতিহত হয়। 

ম্যাচের ৪৩ মিনিটে ডান প্রান্ত থেকে বল বাড়ান রাফিনহা। তবে তা কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করে ডিফেন্ডাররা। কর্নার থেকে আবারও কর্নার পায় ব্রাজিল। কর্নার থেকে সুযোগ তৈরী করলেও তা থেকে গোল করতে পারেনি ব্রাজিল। 

এরপর কর্নার পায় সুইজারল্যান্ড। তবে তা কাজে লাগাতে পারেনি তারা। 

ব্রাজিলের একাদশ: অ্যালিসন বেকার, এদের মিলিতাও, মার্কুইনোস, থিয়াগো সিলভা, অ্যালেক্স সান্দ্রো, কাসেমিরো, ফ্রেড, পাকুয়েতা, রাফিনহা, রিচার্লিসন ও ভিনিসিয়াস জুনিয়র।

সুইজারল্যান্ডের একাদশ: ইয়ান সমার, সিলভান উইডমার, ম্যানুয়েল আকানজি, নিকো এলভেডি, রিকার্ডো রদ্রিগুয়েজ, রেমো ফেউলিয়র, গ্রানিথ সাকা, জিব্রির শো, ফ্যাবিয়ান রেইডার, ব্রেল এমবোলো, রুবেন ভার্গাস।

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

 

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর