শিরোনাম
প্রকাশ : ২৩ অক্টোবর, ২০২০ ২০:১০
আপডেট : ২৩ অক্টোবর, ২০২০ ২০:৪১

চট্টগ্রামে টানা বর্ষণে দুর্ভোগ, জলাবদ্ধতা

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামে টানা বর্ষণে দুর্ভোগ, জলাবদ্ধতা

চট্টগ্রামে টানা বর্ষণে নগরবাসীর বেড়েছে দুর্ভোগ ও ভোগান্তি। শুক্রবার সকাল থেকে দিনভর কখনো থেমে থেমে কখনো মুষলধারে বৃষ্টি পড়েছে। নগরের কোনো কোনো নিন্মাঞ্চলে পানি জমে তৈরি হয়েছে জলাবদ্ধতা। পানিতে তলিয়ে যায় নগরের অনেক মূল সড়ক, উপসড়ক। অসময়ে বৃষ্টির পানি জমে জলাবদ্ধতা হওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছে বাসিন্দারা। পতেঙ্গার আবহাওয়া অফিস এমন টানা বৃষ্টিতে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে।   

জানা যায়, শুক্রবার সকালে আবহাওয়া অধিদপ্তর এক বার্তায় জানিয়েছে, সকাল থেকে টানা বৃষ্টি আর নি¤œচাপের প্রভাবে প্লাবিত হতে পারে চট্টগ্রামের বিভিন্ন নিম্নাঞ্চল। একই সঙ্গে চট্টগ্রামে হতে পারে ভারী থেকে অতি ভারীবর্ষণ। শুক্রবার সকালে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত গভীর নিম্নচাপটি আরও উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে একই এলাকায় নিম্মচাপ আকারে অবস্থান করছে। যা সকালে চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৩৭৫ কি.মি পশ্চিম-দক্ষিণ পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৩৮৫ কি.মি পশ্চিম-দক্ষিণ পশ্চিমে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ১৬০ কি.মি দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ২০৫ কিমি. দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল। এটি আরও উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে পরবর্তীতে সাগর দ্বীপের কাছাকাছি পশ্চিমবঙ্গ-খুলনা উপকূল অতিক্রম করতে পারে।

পতেঙ্গার আবহাওয়াবিদ সেখ ফরিদ আহমেদ বলেন, আকাশ মেঘলা ও মেঘাচ্ছন্ন থাকতে পারে। একই সঙ্গে অধিকাংশ জায়গায় অস্থায়ী ধমকা ও ঝড়ো হাওয়া বইতে পারে। তাই ভারী ও বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। নি¤œচাপের প্রভাবে দক্ষিণ-দক্ষিণ পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ী ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, দিনভর বৃষ্টির কারণে নগরের কিছু কিছু নিচু এলাকায় পানি জমে যায়। নগরের দুই নং গেইট সড়ক, জিইসি মোড়, কাতালগঞ্জ, বাদুরতলা, চকবাজার, আগ্রাবাদ সিডিএ আবাসিক এালাকা, হালিশহর, ছোটপুল, বড়পুলসহ বিভিন্ন এলাকায় পানি জমে যায়। সড়কে পানি জমে যাওয়ায় যানবাহন ও পথচারিরা চরম দুর্ভোগে পড়েন। তাছাড়া চলমান নানা উন্নয়ন কাজের মাটি ও নির্মাণ সামগ্রি রাখার কারণে কর্দমাক্ত হয়ে যায় সড়ক ও ফুটপাত। ফলে বাড়ছে নাগরিক দুর্ভোগ ও ভোগান্তি।  

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর