শিরোনাম
প্রকাশ : ২৯ আগস্ট, ২০২১ ২১:৩১
প্রিন্ট করুন printer

সত্য বলায় বিএনপির কাটা ঘায়ে নুনের ছিটা লেগেছে : আফজাল হোসেন

নিজস্ব প্রতিবেদক

সত্য বলায় বিএনপির কাটা ঘায়ে নুনের ছিটা লেগেছে : আফজাল হোসেন
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা
Google News

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন বলেছেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যাকাণ্ডে জিয়াউর রহমান জড়িত ছিল এটা ঐতিহাসিকভাবে সত্য। আর এই সত্যটা বলায় আজকে বিএনপির কাটা ঘায়ে নুনের ছিটা লেগেছে।’

আজ ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৫৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও কদমতলী থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আকাশ কুমার ভৌমিকের উদ্যোগে মেরাজনগর কমিউনিটি সেন্টারে জাতির পিতার শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন। 

আলোচনা সভা শেষে এলাকার ২ হাজার অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আবু আহমেদ মন্নাফী, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো. হুমায়ুন কবির, সহ-সভাপতি ডা. দিলীপ কুমার রায়, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. মিরাজ হোসেন, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. জগলুল কবির, সদস্য আলহাজ্ব মো. আবুল বাশার, এস এম সহিদুল ইসলাম মিলন, মো. আইয়ুব আলী খান, অ্যাডভোকেট আসমা আক্তার কেকা, কদমতলী থানা আওয়ামী লীগের অর্থবিষয়ক সম্পাদক হাজী মো. ফজলুল হক ফজু, শ্যামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মো. ওমর ফারুক, কদমতলী থানা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. জিহাদ মাতুব্বর প্রমুখ।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী বলেন, ‘জিয়াউর রহমান ছিলেন আইএসের এজেন্ট। বঙ্গবন্ধু হত্যার মূল নায়ক ছিল জিয়া। মুক্তিযোদ্ধা হত্যার নায়ক, ষড়যন্ত্রকারী, মীরজাফর দেশদ্রোহী মানবতাবিরোধী। আর তার দল বিএনপির পার্টিটাও দেশদ্রোহী পার্টি।’
 
হুমায়ুন কবির বলেন, ‘বিএনপি মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিশ্বাস করে না। যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সাথে নাই তাদের আবার রাজনীতি কিসের? বাংলাদেশের রাজনীতি করলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিশ্বাস করতে হবে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে সামনে নিয়ে যদি রাজনীতি করবেন করতে পারেন। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বাদ দিয়ে বাংলাদেশে বাংলার মানুষ আপনাদেরকে এ রাজনীতি করতে দিবে না।’

ডা. দিলীপ রায় বলেন, ‘জাতির পিতা হত্যার আংশিক বিচার হয়েছে। সামনে যারা ছিল তাদের বিচার করা হয়েছে। কিন্তু নেপথ্যে কারা ছিল? এজন্য একটি কমিশন গঠন করে বাঙালি জাতির পিতার হত্যাকারীদের মুখোশ উন্মোচন করতে হবে। কলঙ্কমুক্ত করতে হবে। অন্যথায় সারাজীবন বাঙালিকে এই কলঙ্ক বহন করতে হবে।’ দ্রুত সময়ের মধ্যে এই কমিশন গঠন করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক

এই বিভাগের আরও খবর