১০ জানুয়ারি, ২০২২ ১২:৫৬

বস্তিতে শিশুকে ধর্ষণচেষ্টায় বৃদ্ধকে পুলিশে দিল এলাকাবাসী

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

বস্তিতে শিশুকে ধর্ষণচেষ্টায় বৃদ্ধকে পুলিশে দিল এলাকাবাসী

প্রতীকী ছবি

রাজশাহীতে ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে সাত বছরের শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। মহানগরীর ভাটাপাড়া মতির মোড় রেললাইন বস্তি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরের মাধ্যমে তাকে ধরে রবিবার গভীর রাতে রাজপাড়া থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। তার বিরুদ্ধে রাতেই থানায় নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন ওই শিশুর মা।
 
বস্তিতে ধর্ষণের চেষ্টার এই ঘটনায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়া ওই শিশুকে বর্তামানে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে আটক কবিরকে থানায় রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে এ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
 
নগরীর ৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুজ্জামান টুকু জানান, ঘটনাটি তার বাড়ির পাশের বস্তিতেই ঘটেছে। কবির হোসেন নামের ৬৫ বছরের ওই বৃদ্ধ আগে রডমিস্ত্রির কাজ করতেন। তার স্ত্রী-সন্তান ও নাতি-নাতনি সবই আছে। এরপরও তিনি এই কাজ করেছেন। 
 
গত শনিবার ওই বস্তিতে থাকা সাত বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা চালান তিনি। এ ঘটনায় ওই শিশুটি ভয়ে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়ে। রবিবার রাতে হঠাৎ করেই সে আরও অসুস্থ হয়ে যায়। তাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়ায় ওই শিশুটির প্রথমে কাউকে বিষয়টি জানায়নি। কিন্তু অসুস্থ হওয়ার পর সে বাবা-মাকে পুরো ঘটনা খুলে বলে। পরে বস্তির লোকজন জড়ো হয়ে রবিবার রাতে কবিরের বাড়ি ঘেরাও করে।
 
ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুজ্জামান টুকু আরও বলেন, রবিবার রাত ১২টার দিকে কবিরকে ধরা হলেও সে কৌশলে পালিয়ে যায়। কিন্তু পরে রাতেই তাকে আবারও অন্য জায়গায় থেকে ধরে আনেন স্থানীয় এলাকাবাসী এবং পুলিশের হতে তুলে দেন। এ ঘটনায় শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলেও জানান ওয়ার্ড কাউন্সিলর।
 
নগরীর রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম বলেন, ওই শিশুটির বাবা পেশায় একজন রিকশাচালক এবং মা বাসা-বাড়িতে কাজ করেন। শিশুটিকে একা পেয়ে ওই বৃদ্ধ তার ওপর যৌন নিপীড়ন চালিয়েছে। এ ঘটনায় তার মা বাদী হয়ে রাতেই নারী শিশু নির্যাতন আইনে বৃদ্ধের বিরুদ্ধে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ওই মামলায় তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
 
বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর