শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৩ জানুয়ারি, ২০২০ ০২:০১

সংসদে আলোচনায় উত্তাপ

রাজাকারের তালিকার প্রয়োজনীয়তা নিয়ে প্রশ্ন বিএনপির

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজাকারের তালিকার প্রয়োজনীয়তা নিয়ে প্রশ্ন বিএনপির

রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে বিএনপির এমপি হারুনুর রশীদ বলেছেন, রাজাকারের তালিকা সরকারের বড় ব্যর্থতা। ৫০ বছর পর এই তালিকার কী প্রয়োজন ছিল? মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকাই তো এখন পর্যন্ত করতে পারেননি। রাজাকারের তালিকা ৫০ বছর পর করতে গিয়ে এখন বলছেন পাকিস্তান করেছে আবার বলছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী করেছেন। এটা সরকারের কত বড় ব্যর্থতা? স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে একাদশ সংসদের ষষ্ঠ অধিবেশনে গতকাল একাদশ সংসদের ষষ্ঠ অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি একথা বলেন। হারুনুর রশীদ সংসদে দেওয়া রাষ্ট্রপতির ভাষণকে সত্য-মিথ্যা সংমিশ্রিক বলে উল্লেখ করে বলেন, রাষ্ট্রপতি তার ভাষণে বলেছেন সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন হয়েছে। এটা ঠিক নয়। কথাটি সত্য নয়। এ সময় সরকারদলীয় এমপিরা হৈচৈ করে প্রতিবাদ জানান। তিনি বলেন, ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের যত সময় ঘনিয়ে আসছে সরকারের সন্ত্রাসী তৎপরতা ততই বেড়ে যাচ্ছে। তার প্রমাণ গত পরশু বিএনপির প্রার্থী তাবিথের ওপর হামলা। স্থানীয় সরকার ব্যবস্থাকে জবাবদিহিতামূলক করতে গেলে অবশ্যই অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের মধ্য দিয়ে নির্বাচিত প্রতিনিধির হাতে ক্ষমতা দিতে হবে। তিনি বলেন, বিরোধী দলের নেত্রী খালেদা জিয়াকে জেলে ঢুকিয়ে রাখবেন, উনি মৃত্যুপথযাত্রী, উনার জামিন দেবেন না। উনাকে সাজা দিয়ে দিনের পর দিন মাসের পর মাস আটক রাখবেন। তিনি আরও বলেন, এই ভাষণ কোনোভাবেই সংবিধানের মূল স্প্রিটের সঙ্গে সংগতিপূর্ণ নয়।

 সংবিধান যারা প্রণয়ন করেছিলেন তারা যদি জীবিত থাকতেন তাহলে তারা জ্ঞান হারিয়ে ফেলতেন। এখানে মহামান্য রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আলোচনা চলছে অথচ সংসদের অনেক চেয়ার শূন্য।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর