শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০১:১৭

সুন্দরবনে র‌্যাবের সাফল্যগাথার রোমাঞ্চকর ঘটনা নিয়ে চলচ্চিত্র

অপারেশন সুন্দরবনে টিজার ও ওয়েবসাইট উন্মোচন

সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক

সুন্দরবন জলদস্যুমুক্ত হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৮ প্রধানমন্ত্রী সুন্দরবনকে জলদস্যুমুক্ত ঘোষণা করেন। সুন্দরবনে অপহরণ-হত্যা-দস্যুতা এখন তিরোহিত। জেলেদের কষ্টার্জিত উপার্জনের ভাগও কাউকে দিতে হচ্ছে না। মাওয়ালি, বাওয়ালি, বনজীবী, বন্যপ্রাণী এখন সবাই নিরাপদ। সুন্দরবনে র‌্যাবের এই সাফল্যগাথার রোমাঞ্চকর উপাখ্যান জনসাধারণের সামনে তুলে ধরার জন্য ‘র‌্যাব ওয়েলফেয়ার কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড’-এর প্রযোজনায় ‘অপারেশন সুন্দরবন’ নামে একটি পূর্ণ দৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করা হয়েছে। চলচ্চিত্রটিতে সুন্দরবন ও তৎসংলগ্ন এলাকার উপকূলীয় অঞ্চলের জীবন, জীবিকা ও জৈববৈচিত্র্যকেও প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেছেন ‘ঢাকা অ্যাটাক’ খ্যাত পরিচালক দীপঙ্কর দীপন। ছবিটি নির্মাণে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার করা হয়েছে। জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে গতকাল সন্ধ্যায় আর্মি গল্ফ ক্লাবে এই চলচ্চিত্রটির টিজার ও ওয়েবসাইটের উন্মোচন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি পুলিশ মহাপরিদর্শক ড. বেনজীর আহমেদ। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন র‌্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন, অতিরিক্ত মহাপরিচালক কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সরওয়ার, লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের মুখপাত্র লেঃ কর্নেল আশিক বিল্লাহসহ র‌্যাব ও পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। বেনজীর আহমেদ বলেন, সুন্দরবনে অপারেশন চালিয়ে জলদস্যুদের হাত থেকে মৎস্যজীবী, বনজীবী, বাওয়ালিসহ ওই দুর্গম এলাকার অসহায় মানুষকে রক্ষা করা র‌্যাবের জন্য নিঃসন্দেহে একটা চ্যালেঞ্জ ছিল। সাধারণ মানুষের জানমালের নিরাপত্তায় র‌্যাব যে ধরনের সাহসী ভূমিকা রেখেছিল সেই প্রয়াসের চিত্রায়ণই হচ্ছে  ‘অপারেশন সুন্দরবন’ ছবিটি।

চলচ্চিত্রটির লভ্যাংশ ভিকটিমদের সহায়তা, সাবেক জলদস্যুদের পুনর্বাসনসহ উপকূলীয় অঞ্চলের জনকল্যাণে ব্যয় করা হবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর