শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩১ জুলাই, ২০২১ ২৩:৫১

চট্টগ্রামে সিআইএমসিএইচে যুক্ত হলো আরও ৩০ বেড

বিনামূল্যে পুলিশের অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

Google News

কভিড-১৯ চিকিৎসায় চট্টগ্রাম ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (সিআইএমসিএইচ) যুক্ত হয়েছে আরও ৩০টি বেড। গতকাল কভিড-১৯ চিকিৎসা সরেজমিন পরিদর্শন করতে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনারের নেতৃত্বে একটি টিম চট্টগ্রাম ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আসেন। এ সময় একটি মতবিনিময় সভাও অনুষ্ঠিত হয়। হাসপাতালে ৯০ শয্যা থেকে ১২০ শয্যা করার সিদ্ধান্ত নেয় ব্যবস্থাপনা কমিটি। তাছাড়া চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নতুন অক্সিজেন ম্যানিফোল্ড স্থাপন, বায়োপ্যাপ মেশিন ও অক্সিজেন কনসেনসহ যাবতীয় সহযোগিতার আশ্বাস দেওয়া হয়। এ ছাড়া কভিড-১৯ রোগ নির্ণয়ের জন্য র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের অনুমোদনের বিষয়ে সহযোগিতার আশ্বাস দেন জেলা প্রশাসক। চট্টগ্রাম ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (সিআইএমসিএইচ) কভিড চিকিৎসায় সন্তোষ প্রকাশ করে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মিজানুর রহমান বলেন, চট্টগ্রাম ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কভিড চিকিৎসায় দৃশ্যমান উন্নতি সাধন করেছে। তিনি বলেন, ২০২০ সালের  মে মাসেও এ হাসপাতাল পরিদর্শনে এসেছিলাম। তখন মাত্র ৩০ শয্যায় কভিড আক্রান্তদের চিকিৎসা দেওয়া হতো। ক্রমান্বয়ে সিআইএমসিএইচ সেবার পরিধি বাড়িয়ে সেটাকে ৯০ শয্যায় উন্নীত করেছে। সঙ্গে  ছয়টি করোনা স্পেশালাইজড এইচডিইউ ও আইসিইউ বেড স্থাপন করায় ধন্যবাদ জানান।

এদিকে করোনা আক্রান্তদের জন্য আইসিইউ অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস চালু করেছে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের (সিএমপি) ডবলমুরিং থানা। অসুস্থ ব্যক্তি বা স্বজন ফোন দিলেই আইসিইউ অ্যাম্বুলেন্স হাজির হবে বাসার সামনে। পরে রোগী নিয়ে বিনামূল্যে হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়া হবে। ডবলমুরিং থানার উদ্যোগে গতকাল  থেকে চালু হয়েছে এ সেবা। এর আগে একটি অ্যাম্বুলেন্স ও পাঁচটি সিএনজি অটোরিকশা নিয়ে বিনামূল্যে রোগী পরিবহন সেবা চালু করা হয়। ডবলমুরিং থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন বলেন, এখন থেকে আমরা আরও বিস্তর পরিসরে এ সেবা দেব। ০১৩২০০৫২৭৪৯ নম্বরে ফোন করলে বিনামূল্যে বাসা থেকে এসব গাড়ি রোগীকে হাসপাতালে পৌঁছে দেবে। আবার হাসপাতাল  থেকে বাসায়ও পৌঁছে দেবে। আইসিইউ অ্যাম্বুলেন্সটি প্রদান করে লায়ন ক্লাব অব ব্লুু স্কাই এবং লায়ন ক্লাব অব চট্টগ্রাম সিটি। বাকি চার সিএনজি প্রদান করেন সিদ্দিক রেজওয়ান ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন ও সুপারিওয়ালা পাড়ার মো. জানে আলম।

এই বিভাগের আরও খবর