শিরোনাম
প্রকাশ : ২৮ মার্চ, ২০২০ ১৮:৩০

ট্রেনেই আইসোলেশন ওয়ার্ড

অনলাইন ডেস্ক

ট্রেনেই আইসোলেশন ওয়ার্ড

চীনের উহানে প্রথমবারের মতো শনাক্ত হয় নভেল করোনাভাইরাস। ইতোমধ্যেই বিশ্বের অন্তত ১৯৯টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে এই মহামারী। এ পর্যন্ত বিশ্বে ৬ লাখ ১৪ হাজার ১৫৮ জন মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, মারা গেছেন ২৮ হাজার ২৩৯ জন। আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন প্রায় ১ লাখ ৩৭ হাজার ২৭১ মানুষ।

এদিকে, করোনা মোকাবেলায় ভারতে লকডাউনে স্তব্ধ রেলের চাকা। করোনা মোকাবেলায় ভারতীয় রেলকে এ বার ভিন্ন ভূমিকায় ব্যবহার করার কথা ভাবছে কেন্দ্রীয় সরকার। থমকে থাকা রেলের কোচগুলোকেও আইসোলেশন ওয়ার্ড হিসেবে ব্যবহারের প্রস্তুতি নিচ্ছে কেন্দ্র।

করোনার মতো সংক্রামক ব্যাধিকে রুখতে কী কী পদক্ষেপ নেয়া যেতে পারে? গত বুধবার, মন্ত্রিসভার বৈঠকে নতুন নতুন ভাবনা চেয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেখান থেকেই রেলের কামরাগুলোকে আইসোলেশন ওয়ার্ড হিসেবে ব্যবহারের প্রস্তাব আসে। 

সূত্রের খবর, ওই দিনই রেলমন্ত্রী পীযূষ গয়ালের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করেন রেল বোর্ডের চেয়ারম্যান ভিকে যাদব। সঙ্গে ছিলেন রেলের সমস্ত জোনের জেনারেল ম্যানেজার ও ডিভিশনাল রেলওয়ে ম্যানেজাররা। সেখানেও ওঠে ওই প্রস্তাব।

দৈনিক সাড়ে ১৩ হাজারের বেশি এক্সপ্রেস ট্রেন চালায় ভারতীয় রেল। কিন্তু লকডাউনের জেরে আপাতত ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ রয়েছে রেল পরিষেবা। এই অবস্থায় এক্সপ্রেস ট্রেনের কোচগুলোকে আপৎকালীনভাবে আইসোলেশন ওয়ার্ড করা হলে চিকিৎসা পরিষেবার ক্ষেত্রে অনেক সুবিধা হবে বলে মনে করা হচ্ছে। সূত্র: আনন্দবাজার। 


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য