শিরোনাম
প্রকাশ : ১১ ডিসেম্বর, ২০২০ ১০:৩৩
প্রিন্ট করুন printer

চট্টগ্রামে নতুন করে ১৭৯ জন করোনায় আক্রান্ত

অনলাইন ডেস্ক

চট্টগ্রামে নতুন করে ১৭৯ জন করোনায় আক্রান্ত

গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে নতুন করে ১৭৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে চট্টগ্রামে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৭ হাজার ৪১২ জন। এ সময় চট্টগ্রামে করোনায় মৃত্যু হয়েছে আরও দুইজনের।  

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, গত ২৪ ঘণ্টার নমুনা পরীক্ষায় ১৭৯ জন নতুন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে নগরে ১৬১ জন এবং উপজেলায় ১৮জন।  

শুক্রবার সকালে সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে দেখা যায়, কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাব ও চট্টগ্রামের ৮টি ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় ১হাজার ৫৫১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এরমধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ল্যাব ১১৮টি, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি) ল্যাবে ৫৬৪টি, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ৪৯৬টি, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাবে ১৩৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

এতে চবি ল্যাবে ১৪ জন, বিআইটিআইডি ল্যাবে ২১ জন, চমেক ল্যাবে ৬০ জন, সিভাসু ল্যাবে ১০ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে।

এছাড়া, বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ৭৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ২৭ জন, শেভরন ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরিতে ১০২টি নমুনা পরীক্ষা করে ২২ জন এবং চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ২২টি নমুনা পরীক্ষা করে ৯ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

জেনারেল হাসপাতালের রিজিওনাল টিবি রেফারেল ল্যাবরেটরিতে (আরটিআরএল) ২৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৬টি পজেটিভ শনাক্ত হয়।  

কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের ১৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে কারো শরীরে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব মেলেনি।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১০:৫২
প্রিন্ট করুন printer

করোনা; হাতে ঠেলা রেল ট্রলিতে উত্তর কোরিয়া পাড়ি দিলেন রুশ কূটনীতিক দল ও তাদের পরিবার

অনলাইন ডেস্ক

করোনা; হাতে ঠেলা রেল ট্রলিতে উত্তর কোরিয়া পাড়ি দিলেন রুশ কূটনীতিক দল ও তাদের পরিবার

মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে সারা বিশ্ব থেকে নিজেদের বিচ্ছিন্ন করে রেখেছে উত্তর কোরিয়া। করোনা সংক্রমণ শুরুর দিক থেকে এমন পদক্ষেপ নিয়েছিল দেশটি, যা এখনো অব্যাহত আছে। উত্তর কোরিয়ার এমন কঠোর অবস্থানের কারণে দেশটিতে অবস্থানরত বিদেশী কূটনীতিকদের পড়তে হয়েছে বিপাকে। সম্প্রতি বাসে ও ট্রেনে ৩৪ ঘণ্টা ভ্রমণের পর হাতেঠেলা রেল ট্রলিতে করে সীমান্ত পার হতে হয়েছে রুশ কূটনীতিক ও তাদের পরিবারের সদস্যদের একটি দলকে। আট সদস্যের দলটি ট্রেন এবং বাসে করে সীমান্ত এলাকায় পৌঁছার পর রুশ সীমান্ত পাড়ি দিতে হাতেঠেলা ট্রলিতে প্রায় এক কিলোমিটার রেললাইন পাড়ি দেন।

করোনা সংক্রমণের শুরুতেই ট্রেন ও বাস চলাচল নিষিদ্ধ করে উত্তর কোরিয়া। বেশিরভাগ আন্তর্জাতিক যাত্রীবাহী ফ্লাইটও বন্ধ করে দেওয়া হয়। পিয়ংইয়ং ছেড়ে যেতে রুশ কূটনীতিকদের এই অস্বাভাবিক ট্রলিযাত্রা করা ছাড়া অন্য কোনো বিকল্প খোলা ছিল না।

রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক ফেসবুক পোস্টে বলা হয়েছে, ‘এক বছরের বেশি সময় ধরে যাত্রীবাহী যানবাহন ও সীমান্ত বন্ধ থাকায় বাড়ি ফিরতে দীর্ঘ এবং কঠিন যাত্রা বেছে নিতে হয়।’ ওই পোস্টের সঙ্গে শেয়ার করা ছবিতে দেখা গেছে কূটনীতিকরা ট্রলিতে স্যুটকেস রেখে তা হাতে ঠেলে নিয়ে যাচ্ছেন।

ট্রলিটির ‘মূল ইঞ্জিনের’ ভূমিকায় ছিলেন দূতাবাসের থার্ড সেক্রেটারি ভ্লাদিসলাভ সরোকিন। তিনি তুমেন নদীর রেলসেতু ওপর নিয়ে ট্রলিটি ঠেলে রাশিয়ায় নিয়ে যান। এর আগে রুশ সীমান্তে পৌঁছাতে গ্রুপটি ৩২ ঘণ্টার ট্রেন যাত্রা এবং দুই ঘণ্টার বাসযাত্রা করে।

এই যাত্রায় তাদের মধ্যে সরোকিনের তিন বছর বয়সি মেয়েও ছিল। সীমান্ত পার হওয়ার পর রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা তাদের ভ্লাদিভোস্টক বিমানবন্দরে পৌঁছে দেন।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১০:৩১
আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১০:৩৬
প্রিন্ট করুন printer

টিকা নিতে গিয়ে সংক্রামিত কুয়েতি অভিনেতা, অতঃপর মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

টিকা নিতে গিয়ে সংক্রামিত কুয়েতি অভিনেতা, অতঃপর মৃত্যু
মিশারি আল বালাম

ফাইজার-বায়োএনটেক উদ্ভাবিত করোনাভাইরাসের টিকার প্রথম ডোজ গ্রহণের কয়েক দিন পর মৃত্যু হয়েছে এক কুয়েতি অভিনেতার।

তার নাম মিশারি আল বালাম। তিনি গত সপ্তাহের শনিবার থেকে কয়েতের জাবের আল আহমাদ আল জাবের আল সাবাহ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে ছিলেন। বৃহস্পতিবার সংক্রামক রোগেই তার মৃত্যু হয়।

অভিনেতার পরিবারের পক্ষ থেকে এসব তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

গত ১১ ফেব্রুয়ারি নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডলে একটি ভিডিও শেয়ার করেন ৪৮ বছর বয়সী এই অভিনেতা। এতে তিনি ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকা গ্রহণের কথা বলেন। এ সময় তিনি তার অনুরাগীদেরকেও টিকা নেওয়ার আহ্বান জানান।

তবে তিনি নিজেই করোনায় আক্রান্ত হন এবং দ্রুত তার স্বাস্থ্যের অবনতি হতে থাকে। হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও রক্তে অক্সিজেনের পরিমাণ ব্যাপক হ্রাস পাওয়ায় তার মৃত্যু হয়। 

এদিকে, গত ১৭ ফেব্রুয়ারি ওই অভিনেতা তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে একটি পোস্ট দিয়ে বলেন, “যা ঘটেছে তা হল আমি টিকা নেওয়ার সময় সংক্রামিত হই।” সূত্র: গালফ নিউজ, প্রেস টিভি

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০৮:২০
আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১০:৩১
প্রিন্ট করুন printer

করোনায় প্রাণ গেল আরও সাড়ে ৯ হাজার মানুষের

অনলাইন ডেস্ক

করোনায় প্রাণ গেল আরও সাড়ে ৯ হাজার মানুষের

বিশ্বজুড়ে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের তাণ্ডব চলছেই। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ২৫ লাখ ২৮ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। আক্রান্ত হয়েছে ১১ কোটি ৪০ লাখ মানুষ। গেল ২৪ ঘণ্টায় ভাইরাসটি কেড়ে নিয়েছে সাড়ে ৯ হাজার প্রাণ; নতুন সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে সোয়া ৪ লাখের মতো।

শুক্রবার সর্বোচ্চ দু’হাজারের বেশি মৃত্যু রেকর্ড করেছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৫ লাখ ২৩ হাজার ছুঁইছুঁই।

এছাড়া একদিনে ১৩শ’র বেশি মৃত্যুতে ব্রাজিলে প্রাণহানি ২ লাখ ৫৩ হাজার। এদিন ৩শ’ থেকে ৫শ’ মৃত্যু রেকর্ড করেছে স্পেন, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, জার্মানি ও রাশিয়া।

বিশ্বের অষ্টম দেশ হিসেবে মৃতের সংখ্যা ৮৫ হাজার ছাড়িয়েছে রাশিয়ায়। ভারতে মহামারীর বছরজুড়ে প্রাণহানি ১ লাখ ৫৭ হাজার। মেক্সিকোতে এ সংখ্যা ১ লাখ ৮৪ হাজারের মতো।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে উৎপত্তি হওয়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২২১টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। পরে ১১ মার্চ, ২০২০ সালে করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারী ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০৭:০০
প্রিন্ট করুন printer

বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১১ কোটি ৩৯ লাখ ছাড়াল

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১১ কোটি ৩৯ লাখ ছাড়াল
প্রতীকী ছবি

বিশ্বজুড়ে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। এখন পর্যন্ত সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১১ কোটি ৩৯ লাখ ছাড়িয়েছে।

আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, শনিবার সকাল ৭টা পর্যন্ত সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১১ কোটি ৩৯‌ লাখ ৬০ হাজার ১২৭ জন।

একই সময়ে করোনায় মারা গেছেন ২৫ লাখ ২৭ হাজার ৯৫৩ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮ কোটি ৯৫ লাখ ১৯ হাজার ৫৪৫ জন।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ৯১ লাখ ২৯ হাজার ৬৪৬ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ২২ হাজার ৭৩০ জন।

আক্রান্তের হিসাবে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ১০ লাখ ৭৯ হাজার ৯৪ জন। এর মধ্যে ১ লাখ ৫৬ হাজার ৯৭০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২১:৫৯
প্রিন্ট করুন printer

অকার্যকর ভ্যাকসিন দিয়ে বিশ্বব্যাপী সন্দেহের মুখে চীন!

অনলাইন ডেস্ক

অকার্যকর ভ্যাকসিন দিয়ে বিশ্বব্যাপী সন্দেহের মুখে চীন!
প্রতীকী ছবি

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাই মোকাবেলায় জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহারের জন্য আরও দুটি দেশীয় ভ্যাকসিন অনুমোদন দিয়েছে চীন সরকার। এ নিয়ে দেশটিতে এখন পর্যন্ত চারটি ভ্যাকসিনের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

এদিকে নিজেদের তৈরি করোনা ভ্যাকসিন বিশ্বে ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে চীন। তবে চীনের এই কৌশল প্রায় ব্যর্থ হয়েছে। কারণ অনেক দেশই ইতোমধ্যে জানিয়েছেন যে চীনে তৈরি করোনার ভ্যাকসিন অকার্যকর। এমনকি চীনের মানুষও এই ভ্যাকসিনের ওপর ভরসা করতে পারছেন না।

চীনের দুই বন্ধু দেশ ব্রাজিল এবং পাকিস্তান ভ্যাকসিন নিয়ে গুরুতর শঙ্কা প্রকাশ করেছে। এছাড়া অন্যান্য দেশের আইনপ্রণেতারাও জানিয়েছেন, যে নিরাপদ প্রমাণ না হওয়া পর্যন্ত তারা চীনের ভ্যাকসিন অনুমোদন দেবেন না।

ব্রাজিলের বুটানটান ইনস্টিটিউট জানিয়েছে, চীনের সিনোভ্যাক তাদেরকে হতাশ করেছে। ভ্যাকসিনটি ৫০ শতাংশের বেশি সুরক্ষা দিতে পারে না। চীন পাকিস্তানকে নিজেদের কলোনি হিসেবে গণ্য করে সেখানে চীনা-পাকিস্তান ইকোনমিক করিডোর তৈরি করছে। সেই পাকিস্তানের জনগণই চীনের ভ্যাকসিনে নিতে চাইছে না। 

এদিকে মালয়েশিয়া এবং ফিলিপাইনও জানিয়েছে, ট্রায়ালের ফল সন্তোষজনক না আসা পর্যন্ত তারা চীনের ভ্যাকসিন ব্যবহার করবে না। 

চীনের ভ্যাকসিনের অকার্যকর হওয়ার বিষয়টি নতুন নয়। ২০১৮ সালেও শিশুদের জন্য তৈরি ১০ লাখ ত্রুটিপূর্ণ ভ্যাকসিন তৈরি করেছিল চীন।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর