শিরোনাম
প্রকাশ : ১৩ জুলাই, ২০২১ ০৮:২৯
প্রিন্ট করুন printer

কিশোরগঞ্জে আরও ১২৫ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ১

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

কিশোরগঞ্জে আরও ১২৫ জনের
করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ১
Google News

কিশোরগঞ্জে নতুন করে (সোমবার রাত ১০টা পর্যন্ত) ১২৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আর মৃত্যু হয়েছে একজনের। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৭ হাজার ১৯ জনের এবং মোট মৃত্যু হয়েছে ১১২ জনের।

নতুন আক্রান্তদের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৬৯ জন, হোসেনপুরে ৩ জন, করিমগঞ্জে ২ জন, তাড়াইলে ৮ জন, পাকুন্দিয়ায় ১১ জন, কটিয়াদীতে ২২ জন, ভৈরবে ৫ জন, নিকলীতে ২ জন, বাজিতপুরে ১ জন, ও মিঠামেইনে ২ জন।

সিভিল সার্জন ডা. মুজিবুর রহমান সোমবার রাত ১১ টার দিকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

সিভিল সার্জন আরও জানান, ৭ জুলাই (আংশিক) কিশোরগঞ্জ শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আরটি পিসিআর ল্যাব হতে (প্রি আইসোলেশনে ভর্তিকৃত জরুরি রোগীসহ) ১৭৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৪৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া ১১ জুলাই বাজিতপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আরটি-পিসিআর ল্যাবে ৭৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল, হোসেনপুর, করিমগঞ্জ, তাড়াইল, পাকুন্দিয়া, কটিয়াদী ও মিঠামইন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মোট ২৪৩ জনের র‌্যাপিড এন্টিজেন টেস্টে ৬৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এদিকে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন ২৬ জন, সুস্থ হয়ে ছাড়পত্র পেয়েছেন ১০ জন, করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১ জনের এবং সন্দেহজনক করোনায় ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি রয়েছেন ৯ জন। জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন মোট ১১২ জন।

সিভিল সার্জন আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৩৭ জন। এ পর্যন্ত জেলায় মোট ৫ হাজার ৫৫২ জন সুস্থ হয়েছেন। বর্তমানে জেলায় সর্বমোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১ হাজার ৩৫৫ জন। এরমধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৭৭২ জন, হোসেনপুরে ৩৫ জন, করিমগঞ্জে ৪৭ জন, তাড়াইলে ৪৮ জন, পাকুন্দিয়ায় ৯৪ জন, কটিয়াদীতে ১২৬ জন, কুলিয়ারচরে ১৫ জন, ভৈরবে ১৪০ জন, নিকলীতে ১২ জন, বাজিতপুরে ৩৩ জন, ইটনায় ২৫ জন, মিঠামইনে ৭ জন ও অষ্টগ্রামে ১ জন।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনে /আইসোলেশনে রয়েছেন ১ হাজার ২৭৭ জন। আর হাসপাতাল আইসোলেশনে রয়েছেন ৭৮ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ভ্যাকসিনের জন্য কেউ রেজিস্ট্রেশন করেননি বলে সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে। ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত রেজিস্ট্রেশন করেছেন ১ লাখ ২৭ হাজার ৪৮১ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সিনোফার্ম ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিয়েছেন ১ হাজার ৭৯২ জন। গত ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত কোভিশিল্ডের প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছেন ৭৬ হাজার ৬৬৫ জন এবং মোট দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৫৯ হাজার ৩০৭ জন। এছাড়া গত ১৯ জুন থেকে সিনোফার্ম ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছেন ৪ হাজার ৭৭৮ জন।

 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা