শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯ ০১:৪০

হাত-পা বাঁধা অবস্থায় অপহৃত উদ্ধার

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

বাড়ি থেকে জরুরি কাজে ঢাকা যাওয়ার পথে মদনপুর থেকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের শ্যালক-দুলাভাইকে অপহরণ ও ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবির ৭ দিনের মাথায় অপহৃত একজনকে আড়াইহাজার উপজেলার ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়ন পরিষদ অফিসের বারান্দা থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করেছে পুলিশ। অপরজন কৌশলে পালিয়ে গেছে। উদ্ধারকৃত শ্রমিকের নাম শাহ আলম (৩২)। তিনি কুমিল্লা সদর দক্ষিণ থানার লোলবাড়িয়া এলাকার হাফেজ             আহাম্মদের ছেলে।

শাহ আলম জানান, তাকে ও তার শ্যালক আরিফকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মদনপুর থেকে অপহরণ করা হয়। এর পর বিভিন্ন স্থানে নিয়ে গিয়ে হাত- পা বেঁধে নির্যাতন করা হয় এবং বিভিন্ন নম্বর থেকে ফোন করে পরিবারের কাছে ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়। পরিবার ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে  পুুলিশকে বিষয়টি জানায়।

পুলিশ প্রায় এক সপ্তাহ খোঁজাখুঁজি করে বৃহস্পতিবার রাতে শাহ আলমকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা করায়। শাহ আলম বর্তমানে ঢাক মেডিকেলে ভর্তি রয়েছেন। এ ব্যাপারে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ উজানগোপিন্দী গ্রামের আলমগীর নামে একজনকে আটক করেছে। এ বিষয়ে শাহ আলমের বড় ভাই জাহাঙ্গীর আলম ধৃত আলমগীর ও শাহেদ, আফজাল, রাতুল, আরমান, মাজহারুলের নাম উল্লেখ করে মামলা করেছেন। এদের বাড়ি ব্রাক্ষন্দী ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে।


আপনার মন্তব্য