শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ মার্চ, ২০১৯ ২৩:২৫

ক্ষতিপূরণ পায়নি ১৩ পরিবার

বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটের শরণখোলায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) ৩৫/১ পোল্ডারের খোন্তাকাটা ইউনিয়নের রাজৈর মারকাজ মসজিদ থেকে কুমারখালী পর্যন্ত প্রায় ছয় কিলোমিটার বাঁধের দুই পাশে সৃজিত বনায়নের ক্ষতিপূরণ পায়নি রক্ষণাবেক্ষণকারী ১৩টি ইএস (ইম্ব্যাংমেন্ট শেল্টার) পরিবার। বাগেরহাট পানি উন্নয়ন বোর্ড (বাপাউবো ) এবং ইম্ব্যাংমেন্ট শেল্টার (ইএস) পরিবারের মধ্যে ২৫ বছর মেয়াদী চুক্তিপত্র রয়েছে। তা সত্বেও বাঁধ উন্নয়নের স্বার্থে নির্ধারিত মেয়াদের আগে ছয় সহ¯্রাধিক অপরিপক্ক গাছ কাটা হলেও তিন বছরেও তাদের সেই ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়নি। ক্ষতিপূরণ না পাওয়া ওই পরিবারগুলো পাউবোর ঊর্ধ্বতন মহলসহ প্রশাসনের কাছে বার বার ধর্ণা দিয়েও কোনো ফল পাচ্ছে না।

উপকূলীয় বাঁধ উন্নয়ন প্রকল্পের খুলনার নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আশরাফুল আলম বলেন, কাজ শুরুর তিন মাস আগেই ইএস পরিবারকে তাদের গাছ সরিয়ে নিতে বলা হয়। ওই গাছ বিক্রি করে প্রাপ্ত অর্থের মালিকও তারা। তবে বাগেরহাটের পাউবোর স্টেশন কর্মকর্তা (এসও) মো. আলতাফ হোসেসেন কাছে ইএস পরিবারের গাছের ক্ষতিপূরণের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর