শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০১:৩৮

শিশুদের বাতিঘর ‘আলোর পাঠশালা’

ফারুক আল শারাহ, লাকসাম (কুমিল্লা)

শিশুদের বাতিঘর ‘আলোর পাঠশালা’

কুমিল্লার লাকসামে সুবিধাবঞ্চিত শিশু ও বয়স্কদের মধ্যে শিক্ষার আলো ছড়াচ্ছে ব্যতিক্রম শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ‘আলোর পাঠশালা’। ‘মানবতার তরে মানবপ্রেমী’ নামক স্বচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্যোক্তারা উপজেলার কৃষ্ণপুর আশ্রয়ন প্রকল্প ও রেলওয়ে জংশনে গড়ে তোলেন ‘আলোর পাঠশালা’।

জানা যায়, ৩৫/৪০ জন তরুণ-তরুণীর আলোকিত সমাজ গড়ার প্রত্যয়ে ২০১৭ সালের ১ জুলাই ‘মানবতার তরে মানবপ্রেমী’ সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন। প্রাথমিকভাবে কুমিল্লার লাকসামে মুমুর্ষ রোগীদের বিনামূল্যে রক্তদান কার্যক্রম শুরু করলেও বর্তমানে লাকসাম, মনোহরগঞ্জ, নাঙ্গলকোট ও কুমিল্লা মহানগরে এ সংগঠন বিভিন্ন জনকল্যাণমুলক কার্যক্রম পরিচালনা করছে। বর্তমানে স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে পাঁচ হাজারের বেশি তরুণ-তরুণী এ সংগঠনের সঙ্গে সম্পৃক্ত। এদের অধিকাংশই বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী। লাকসাম উপজেলার কৃষ্ণপুর আশ্রয়ন প্রকল্পে তাদের গড়ে তোলা ‘আলোর পাঠশালা-১’ সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের, ‘আলোর পাঠশালা-২’ বয়স্কদের এবং লাকসাম রেলওয়ে জংশনে ‘আলোর পাঠশালা-৩’ শিক্ষার শিশুদের মধ্যে আলো ছড়াচ্ছে। এ তিন স্তরে প্রায় দেড়শ ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে। মানবতার তরে মানবপ্রেমী সংগঠনের ৩৫ জন সদস্য সপ্তাহের শুক্র ও শনিবার ছাড়াও সুবিধাজনক সময়ে আলোর পাঠাশালায় পাঠদান করেন। সংগঠনের সভাপতি মিজানুর রহমান বলেন, ‘সমাজের সুবিধাবঞ্চিত শিশু ও নিরক্ষর বয়স্কদের শিক্ষিত জনগোষ্ঠীতে পরিনত করার লক্ষ্যেই আমরা ‘আলোর পাঠশালা’ চালুর উদ্যোগ নিয়েছি। আগামী প্রজন্মকে শতভাগ শিক্ষিত হিসেবে গড়ে তোলাই আমাদের মুল লক্ষ্য। সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা অ্যাড. রফিকুল ইসলাম হিরা বলেন, সুবিধাবঞ্চিত শিশু ও  বয়স্কদের শিক্ষায় আলোর পাঠশালা সমাজে আলোর প্রদীপ জালাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করছি।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর