শিরোনাম
শুক্রবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০২৩ ০০:০০ টা

চলাচলের অযোগ্য সড়ক

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

চলাচলের অযোগ্য সড়ক

বগুড়ার সারিয়াকান্দি পৌর এলাকার দেলুয়াবাড়ী সড়কের বেহাল দশায় ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। এক বছর ধরে ওই সড়ক চলাচলের অযোগ্য হয়ে আছে। সড়কের বালু কেটে রাখায় সেখান দিয়ে চলাচল করছে না কোনো যানবাহন। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ঠিকাদারের গাফিলতিতে পড়ে আছে ওই সড়কের কাজ। এর জন্য দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে দেলুয়াবাড়ী ও দীঘলকান্দি গ্রামের হাজার হাজার মানুষকে।

জানা যায়, সারিয়াকান্দি পৌর এলাকার বারইপাড়া গ্রামের ঈদগাহ মাঠের কাছে সারিয়াকান্দি কুতুবপুর মেইন সড়ক থেকে শুরু হয়ে ওই সড়ক দেলুয়াবাড়ী গ্রামের প্রধান সড়কের সঙ্গে সংযুক্ত হয়েছে। উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অফিস থেকে এক বছর ধরে আগে সড়কটির সংস্কার কাজ শুরু হয়। মেরামত শুরুর সময় সড়কের ওপরে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু কাটা হয়। পরে তা আর সমান করা হয়নি। এ সড়ক দিয়ে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে দেলুয়াবাড়ী ও দীঘলকান্দি গ্রামের হাজার হাজার মানুষকে উপজেলা সদরে যাতায়াত সীমাহীন কষ্ট করতে হচ্ছে। এ দুই গ্রামের মানুষ প্রায় ২ কিলোমিটার ঘুরে বাগবেড় গ্রাম দিয়ে চলাচল করছেন। এতে তাদের যেমন সময় অপচয় হচ্ছে তেমনি অতিরিক্ত অর্থ খরচ হচ্ছে। এলাকাবাসীর দাবি অতি দ্রুত সড়কটির কাজ শেষ করা। দেলুয়াবাড়ী গ্রামের মোফাজ্জল হোসেন জানান, এক বছর সড়কটিতে বালু কেটে রাখা হয়েছে। তা সমান করেও দেওয়া হয়নি। এ সড়ক দিয়ে গ্রামের মানুষ চলাচল করতে পারছেন না। কয়েক কিলোমিটার ঘুরে বাগবেড় গ্রাম দিয়ে উপজেলা সদরে যেতে হচ্ছে। এতে আমাদের টাকা এবং সময় দুটোই বেশি লাগছে। ওই রাস্তা সংস্কারে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স আসমাউল হুসনার স্বত্বাধিকারী নাহিদ নেওয়াজ রোমান জানান, সম্প্রতি বন্যার কারণে কিছুদিন সড়কটির নির্মাণকাজ বন্ধ রাখা হয়েছিল। শিগগিরই কাজ শুরু করা হবে।

সারিয়াকান্দি পৌরসভার মেয়র মতিউর রহমান মতি জানান, সড়কটির মেরামত কাজ দ্রুত শেষ করার জন্য উপজেলা প্রকৌশল কার্যালয়কে বারবার বলা হচ্ছে। তার পরও কাজটি শেষ করা হচ্ছে না।

সারিয়াকান্দি উপজেলা প্রকৌশলী তুহিন সরকার জানান, সড়কটি সংস্কার কাজ দ্রুত করতে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারকে বলা হয়েছে। তিনি দ্রুত কাজ শুরু করবেন।

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর