Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ৯ অক্টোবর, ২০১৯ ২১:১৯

টাঙ্গাইলে ধানক্ষেতে কীটনাশক দিতে গিয়ে প্রাণ গেল কৃষকের

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি :

টাঙ্গাইলে ধানক্ষেতে কীটনাশক দিতে গিয়ে প্রাণ গেল কৃষকের
প্রতীকী ছবি

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে আমন ধানক্ষেতে স্প্রে মেশিন দিয়ে কীটনাশক (বিষ প্রয়োগ) প্রয়োগ করতে গিয়ে বিষক্রিয়ায় নুরুল ইসলাম (৫৫) নামের এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার দুপুরে উপজেলার জামুরিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের পরিবার ও স্থানীয় ইউপি মেম্বার বন্দেছ আলী বলেন, নুরুল ইসলাম মূলত একজন কৃষক। আমন ধান ক্ষেতে পোকায় আক্রমণ করায় সে সকালে বাজার থেকে কীটনাশক (বাসোডিন) কিনে আনেন। কীটনাশক জমিতে স্প্রে করার জন্য সে একই গ্রামের সেলিমের কাছ থেকে কীটনাশক প্রয়োগের স্প্রে মেশিন ভাড়া করেন। বুধবার দুপুরের দিকে স্প্রে মেশিনে কীটনাশক মিশ্রিত পানি ভর্তি করে ধানক্ষেতে প্রয়োগ করার জন্য যান। মুখে মুখোশ না দিয়ে ধানক্ষেতে কীটনাশক স্প্রে করা শুরু করেন। কীটনাশক স্প্রে করার সময় হঠাৎ ধমকা হাওয়া শুরু হয়। উল্টো দিক থেকে বাতাস বইতে শুরু করলে কীটনাশক মিশ্রিত পানি তার নাক, মুখ ও চোখে লাগে। স্প্রে করা অবস্থায়ই নুরুল ইসলাম ধানক্ষেতে লুটিয়ে পড়েন। ঘটনাটি তার ছেলে ও আশেপাশের লোকজন দেখতে পেয়ে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে। পরে তাকে ঘাটাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পথেই তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে কৃষিবিদ হাসান ইমাম বলেন, মুখে কাপড় না বেঁধে অনিরাপদ অবস্থায় কীটনাশক প্রয়োগ করার কারণে বিষক্রিয়ায় তার মৃত্যু হতে পারে। তবে মারা যাওয়ার সঠিক কারণ ময়না তদন্ত রিপোর্ট পেলে বলা যাবে। 

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য