শিরোনাম
প্রকাশ : ৪ জুলাই, ২০২০ ০২:৩৫

সালিশ বৈঠকে ছুরিকাঘাতে অটোরিকশা চালককে হত্যার অভিযোগ

লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি

সালিশ বৈঠকে ছুরিকাঘাতে অটোরিকশা চালককে হত্যার অভিযোগ
প্রতীকী ছবি

কুমিল্লার লাকসামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সানা উল্লাহ (৫৫) নামক এক অটোরিকশা চালককে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার চারবাড়িয়া গ্রামস্থ একটি দোকানে সালিশ বৈঠকে ছুরিকাঘাতে ওই ব্যক্তিকে হত্যা করা করা হয় বলে তার স্বজনরা জানান। মরদেহের ময়নাতদেন্তর জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণের প্রস্তুতি চলছে।

স্থানীয় ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, চরবাড়িয়া গ্রামের হালিয়াপাড়ার শফি উল্লাহর ছেলে অটোরিকশা চালক সানা উল্লাহ শুক্রবার জুমার নামাজ আদায় করতে মসজিদে যান। এসময় ওই এলাকার জামশেদের ছেলে মসজিদের ভিতরে হাসাহাসি ও দুষ্টমি করলে সানা উল্লাহ তাকে নিষেধ করেন। নামাজ শেষে বিষয়টিকে ঘিরে দু'পক্ষের মধ্যে বাকবিতাণ্ডা হয়। বিষয়টি সমাধানের জন্য সন্ধ্যায় স্থানীয় সিরাজুল ইসলামের দোকানে সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক চলাকালে জামশেদ ও তার লোকজন সানা উল্লাহকে মারধরের একপর্যায়ে শরীরে ছুরিকাঘাত করে। মুমূর্ষু অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত সানা উল্লাহ’র ছেলে শরিফ জানান, প্রতিপক্ষ অন্যায়ভাবে আমার নিরীহ বাবাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে। আমরা এ ঘটনার উপযুক্ত বিচার চাই। দ্রুত আসামিদের গ্রেফতার করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে তিনি প্রশাসনের সুদৃষ্টি চেয়েছেন।

লাকসাম থানার ওসি নিজাম উদ্দিন বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ মর্গে পাঠিয়ে ময়নাতদন্তের প্রস্তুতি চলছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর