শিরোনাম
প্রকাশ : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৬:৩৭

শ্রীমঙ্গলে ওএমএস’র চাল আত্মসাতের অভিযোগ

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি

শ্রীমঙ্গলে ওএমএস’র চাল আত্মসাতের অভিযোগ

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার সিন্দুরখাঁন ইউনিয়নে সরকারের খাদ্য-বান্ধব কর্মসূচির দশ টাকা কেজির চাল আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড মেম্বার মো. মোছাব্বির মিয়া ও ডিলার জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে।

আজ বুধবার সকালে ওই ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মো. শাহাজান মিয়া ও মো. আরজু মিয়া প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন। এর আগে গত ১৪ সেপ্টেম্বর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছেও তারা এই অভিযোগ করেন।

তারা লিখিত বক্তব্য জানান, ২০১৬ সাল থেকে তারা ওএমএসর খাদ্য-বান্ধব কর্মসূচির তালিকাভুক্ত ছিলেন। ২০২০ সালের জুন মাসের তালিকায় তাদের ত্রুমিক নং ৫৮ ও ৬৬। আরজু মিয়া বলেন, তিনি ২০১৬ সালে প্রথম একবার চাল উত্তোলন করেছিলেন। দ্বিতীয় বার চাল উত্তোলন করতে গেলে মোছাব্বির মেম্বার তাকে বলেন উপজেলা থেকে তার কার্ড বাতিল করা হয়েছে। এরপর থেকে তিনি আর চাল উত্তোলন করেননি।

শাহাজান মিয়া বলেন, তার নামে ওএমএসর একটি কার্ড রয়েছে। কিন্তু ২০১৬ সাল থেকে আজ পর্যন্ত তিনি একবারও চাল পাননি। এমনকি কার্ডও পাননি।

এ ব্যাপারে ইউপি সদস্য মোছাব্বির মিয়া বলেন, ‘এ অভিযোগ মিথ্যা। সামনে নির্বাচন আসছে। তাই আমাকে হেয়-প্রতিপন্ন করার জন্য এগুলো করা হচ্ছে।’ আর ডিলার জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘গত দুই মাস ধরে এই দুইজন চাল নিচ্ছেন না। এর আগে নিয়মিত তাদের নামে চাল নেয়া হয়েছে। তবে কে বা কারা নিচ্ছেন তা আমি বলতে পারবো না। এটা তাদের ওয়ার্ডের মেম্বার ভাল বলতে পারবেন।’

ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল্লা আল হেলাল বলেন, ‘চাল না পাওয়ার বিষয়টি আমাকে কেউ জানায়নি।’ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম বলেন, ‘আমি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে দেখবো।’

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর