শিরোনাম
প্রকাশ : ২ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৭:০৪
প্রিন্ট করুন printer

হবিগঞ্জে মায়ের পরকীয়া প্রেমের বলি শিশু

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

হবিগঞ্জে মায়ের পরকীয়া প্রেমের বলি শিশু

হবিগঞ্জে পরকীয়া প্রেমিককে কাছে পেতে জুসের সাথে বিষপান করিয়ে নিজের ৩ শিশু সন্তানকে হত্যা করতে চেয়েছিল পাষণ্ড মা ফাহিমা খাতুন। এতে ১ সন্তান মারা গেলেও ভাগ্যক্রমে বেঁচে যায় ২ সন্তান। 

মঙ্গলবার হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুল ইসলামের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন পাষণ্ড ফাহিমা খাতুন। আদালতে স্বীকারোক্তি প্রদান শেষে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রবিউল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, দীর্ঘদিন ধরে হবিগঞ্জ সদর উপজেলার রাজিউড়া ইউনিয়নের উচাইল-চারিনাও গ্রামের ইজিবাইক চালক সিরাজুল ইসলামের স্ত্রী ফাহিমা খাতুনের সাথে পার্শ্ববর্তী বাড়ির আক্তার মিয়ার পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। একাধিক বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ আক্তার মিয়ার সাথে ফাহিমা আক্তারের স্বামীরও গভীর বন্ধুত্ব ছিল। একপর্যায়ে তারা ঘর বাঁধার স্বপ্ন দেখে। কিন্তু এতে বাধা হয়ে দাঁড়ায় ফাহিমার ৩ সন্তান। 

২০১৯ সালের ১৮ নভেম্বর সন্ধ্যায় বাড়ির পাশের দোকান থেকে ফাহিমা ২টি লিচুর জুস ক্রয় করে এনে প্রেমিক আক্তার মিয়ার হাতে দেয়। আক্তার মিয়া জুসে বিষ দেয়। পরবর্তীতে আক্তার মিয়া ও ফাহিমা খাতুন ৩ সন্তানকে উঠান থেকে ডেকে এনে জুস খাইয়ে দেয়। জুস খাওয়ার পরই বিষক্রিয়ায় পাষণ্ড ফাহিমার ৩ শিশু সন্তান ছটফট করতে থাকে। 

পরে এলাকাবাসীর সহায়তায় ৩ শিশুকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে ফাহিমার ৭ বছরের শিশু কন্যা সাথী আক্তারকে মৃত ঘোষণা করেন কর্মরত চিকিৎসক। আর অপর শিশু তোফাজ্জল ইসলাম ও রবিউল  ইসলাম সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার পর সুস্থ হয়। 

পরে ফাহিমা ও আক্তারের পরকীয়া প্রেমের বিষয়টি প্রকাশ পায়। এরপর শিশুদের পিতা সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে স্ত্রী ফাহিমা আক্তারসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১৪:৪০
প্রিন্ট করুন printer

আমাদের কিছুটা থমকে দিয়েছে করোনাভাইরাস: বাণিজ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

আমাদের কিছুটা থমকে দিয়েছে করোনাভাইরাস: বাণিজ্যমন্ত্রী
ফাইল ছবি

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, করোনাভাইরাসের কারণে উন্নয়ন কিছুটা থমকে গেলেও সরকার এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে। আজ বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে এ কথা বলেন তিনি।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ২০০৮ সালে আমাদের অর্থনীতি ছিল ৩৫০ বিলিয়ন ডলারের। বর্তমানে আমাদের অর্থনীতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৫০০ বিলিয়ন ডলারে। বাংলাদেশের মানুষের মাথাপিছু আয় বেড়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় ২ হাজার ১০০ ডলারে। ২০০৮-২০০৯ অর্থবছরে আমাদের বাজেট ছিল ৯৩ হাজার কোটি টাকা। সেই বাজেটের পরিমাণ ২০২০-২০২১ অর্থবছরে এসে দাঁড়িয়েছে ৫ লাখ ২৫ হাজার কোটি টাকায়। এভাবে দেশ ধারাবাহিকভাবে এগিয়ে যাচ্ছে।

টিপু মুনশি বলেন, পদ্মা সেতু নিযে বিশ্বব্যাংক দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছিল। প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিলেন, আমরা নিজস্ব অর্থে পদ্মা সেতু তৈরি করব। আজ পদ্মা সেতুর বাস্তবায়ন এগিয়ে যাচ্ছে। পদ্মা সেতু নির্মাণের মধ্য দিয়ে আমরা অর্থনৈতিক অবস্থা সুদৃঢ় করতে পেরেছি। পদ্মা সেতু নিয়ে বিশ্বব্যাংক যে দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছিল তা পরে কানাডার কোর্টে মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে। দুর্নীতি নয়, কানাডার ওই কোর্টের রায়ে উঠে আসে বিএনপি একটি সন্ত্রাসী দল।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ তাফসীর


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১৪:৩৬
প্রিন্ট করুন printer

কুমিল্লার লাকসামে তুলার কারখানা থেকে অগ্নিকাণ্ড

লাকসাম প্রতিনিধি

কুমিল্লার লাকসামে তুলার কারখানা থেকে অগ্নিকাণ্ড

কুমিল্লার লাকসামে অগ্নিকাণ্ডে তিনটি দোকান পুড়ে কয়েক লাখ টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে বলে দাবি করেছেন ব্যবসায়ীরা। বুধবার (২৭ জানুয়ারি) রাতে পৌরসভার রাজঘাট এলাকায় এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, রাত সাড়ে ৮টার দিকে আব্দুল কুদ্দুসের তুলার কারখানায় বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহূর্তের মধ্যে আগুন পার্শ্ববর্তী আজাদ মিয়ার জেনারেটর ও ইলেকট্রিক দোকান, ফয়সাল আহমেদের ফয়সাল ক্রোকারিজ দোকানে ছড়িয়ে পড়ে। তাৎক্ষণিক আশপাশের লোকজন ছুটে এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা চালায়। পরে লাকসাম ফায়ার স্টেশনের একটি ইউনিট এসে আগুন নেভায়।

লাকসাম ফায়ার স্টেশন ও সিভিল সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন জানান, আগুন লাগার খবর শুনে কিছুক্ষণের মধ্যে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভাতে সক্ষম হই। বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে তার ধারনা। 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১৪:২৮
প্রিন্ট করুন printer

বানারীপাড়া পৌরসভায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোর্থী প্রার্থী মিন্টুসহ ৩ জন বহিষ্কার

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল

বানারীপাড়া পৌরসভায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোর্থী প্রার্থী মিন্টুসহ ৩ জন বহিষ্কার

বরিশালের বানারীপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জিয়াউল হক মিন্টুসহ তিনজনকে দল থেকে বহিষ্কার এবং একজনের সদস্য পদ বাতিলের সুপারিশ কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

জেলা আওয়ামী লীগের নির্দেশে বুধবার সন্ধ্যায় বানারীপাড়ায় দলীয় কার্যালয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের এক সভায় তাদের চূড়ান্ত বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়ে কেন্দ্রে রেজুলেশন পাঠানো হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি গোলাম সালে মঞ্জু মোল্লার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক বিশেষ বর্ধিত সভার সিদ্ধান্ত রেজুলেশন আকারে তাৎক্ষণিক (ই-মেইল) কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের পাঠানো হয়।  

উপজেলা আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক অধ্যাপক মো.আশ্রাফুল হাসান সুমন স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বানারীপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো.জিয়াউল হক মিন্টুকে দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। 

এছাড়া আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধাচারণ করে বিদ্রোহী প্রার্থী মো. জিয়াউল হক মিন্টুকে অব্যাহত সহযোগিতা করায় পৌর আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক মো. মাহফুজুল হক মাসুম ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হাবিবুর রহমানকে দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত হয়। বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষাবলম্বন-সহ দলীয় শৃঙ্খলা বিনষ্টে জড়িত থাকায় মো. জামাল হোসেন সাইয়েদের নামে একজনের দলীয় সদস্য পদ বাতিল করা হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাওলাদ হোসেন সানা ৩ নেতার বহিষ্কার এবং একজনের সদস্য পদ বাতিলের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১৪:২৪
প্রিন্ট করুন printer

শেরপুরে শিমের কেজি ৫ টাকা

শেরপুর প্রতিনিধি:

শেরপুরে শিমের কেজি ৫ টাকা

শেরপুরে শীতকালীন ফসল শিমের কেজি এখন মাত্র ৫ টাকা। শেরপুরের চরাঞ্চল ও সীমান্ত এলাকাজুড়ে এই শিমের ব্যাপক ফলন হয়েছে বলে জানিয়েছেন চাষিরা।

উৎপাদক পর্যায়ে শিম প্রতিকেজি এখন বিক্রি হচ্ছে ৪/৫ টাকায়। পাইকারি পর্যায়ে বিক্রি হচ্ছে ৬/৭ টাকা। খুচরা পর্যায়ে ১০ টাকাতেই মিলছে শিম। 

তাছাড়া অন্যান্য সবজি কপি, বেগুন, লাউ, কাঁচা মরিচ, আলুর দামও কমেছে ব্যাপক হারে। বাজার গুলোতে সবজি এখন ভরপুর।

চরাঞ্চলের ঈলশা এলাকা সবজি উৎপাদক সমেজ উদ্দিন জানিয়েছেন, প্রথম প্রথম একটু ভালো দামে সবজি বিক্রি করা গেলেও এখন সবজি পাইকাররা নিতেও চায় না। দামও কম। এত টাকা খরচ ও পরিশ্রম করে করে সবজি উৎপাদন করে এখন বিপদে পড়েছি। লাভ তো দূরের কথা।

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১৪:২৪
প্রিন্ট করুন printer

শীতার্ত এতিম শিক্ষার্থীদের পাশে ভিক্টোরি অব হিউম্যানিটি

অনলাইন ডেস্ক

শীতার্ত এতিম শিক্ষার্থীদের পাশে ভিক্টোরি অব হিউম্যানিটি

সাড়া জাগানো মানবিক সংগঠন ভিক্টোরি অব হিউম্যানিটি অর্গানাইজেশনের স্বেচ্ছাসেবীরা মানবিকতা নিয়ে শীতার্ত এতিম শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন। সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবীরা সাতটি ধাপে কুমিল্লার লাকসাম ও মনোহরগঞ্জে ৮টি এতিমখানার শিক্ষার্থীদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছেন।

এছাড়াও সমাজের গরীব ও অসহায় শীতার্ত মানুষের মধ্যে সংগঠনের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

ভিক্টোরি অব হিউম্যানিটি অর্গানাইজেশনের শীতবস্ত্র বিতরণ কর্মসূচির সার্বিক তত্ত্বাবধানে রয়েছেন সংগঠনের সভাপতি মো. ফয়সাল হোসেন বাপ্পি, সহ-সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল কাইয়ূম, দপ্তর সম্পাদক রকিবুল হাসান শান্ত, প্রচার সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সুজন, নাথেরপেটুয়া শাখার সভাপতি মামুন মিজান, প্রচার সম্পাদক জোবায়ের হোসেন, নরপাটি শাখার সভাপতি রাশেদ। কর্মসূচি বাস্তবায়নে সহযোগিতা করছেন সংগঠনের নির্বাহী সদস্য শাহাদাৎ হোসেন, মাইনুল ইসলাম রাসেল, জোবায়ের আহমেদ জীবন, ইস্রাফিল আমিন, স্বাধীন, রশিদ ইকবাল, ইব্রাহিম হোসেন, মাসুম, সাগর, মাসুম খান, মোকসেদ আলমসহ প্রমুখ।

সংগঠনের সভাপতি মো. ফয়সাল হোসেন বাপ্পি জানান, ভিক্টোরি অব হিউম্যানিটি অর্গানাইজেশনের স্বেচ্ছাসেবীরা মানবিকতা নিয়ে মানুষের কল্যাণে নিবেদিতভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে শীতার্ত এতিম শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।  

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর