শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৫:৪০
প্রিন্ট করুন printer

কালিয়াকৈরে সূর্যমুখী চাষে ঝুঁকছেন কৃষকরা, ভালো ফলনের আশা

কালিয়াকৈর প্রতিনিধি

কালিয়াকৈরে সূর্যমুখী চাষে ঝুঁকছেন কৃষকরা, ভালো ফলনের আশা

কালিয়াকৈরে সূর্যমুখী ফুলের চাষ শুরু করেছেন কৃষকরা। ইতিমধ্যে উপজেলার সরকারি প্রণোদনার মাধ্যমে ৪০ জন কৃষক সূর্যমুখী ফুলের চাষ করেছেন।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরে কালিয়াকৈর উপজেলা ও পৌরসভার বিভিন্ন এলাকায় সূর্যমুখীর চাষ করা হয়েছে। মোট ৪০ বিঘা জমিতে ৪০ জন কৃষক হাইসান-৩৩ জাতের সূর্যমুখী ফুলের চাষ করেছেন। কৃষি অফিস কৃষকদের বিনামূল্যে সূর্যমুখীর বীজ ও সার দিয়েছে। সূর্যমুখী চাষের ৯০ থেকে ১০৫ দিনের মধ্যেই কৃষকরা বীজ ঘরে তুলতে পারবেন। প্রতি বিঘা জমিতে ছয় থেকে সাড়ে ছয় মণ সূর্যমুখী ফুলের বীজ পাওয়া যাবে। 

বিঘা প্রতি ১৫ থেকে ১৭ হাজার টাকার বীজ বিক্রি করতে পারবে। কৃষকদের স্বাবলম্বী করতেই সূর্যমুখী ফুল চাষে উৎসাহিত করা হয়েছে। ইতোমধ্যেই সূর্যমুখী গাছে ফুল ধরতে শুরু করেছে। প্রতিদিন শহরসহ আশপাশ এলাকা থেকে সৌন্দর্য পিয়াসুরা দল বেঁধে আসেন এই সূর্যমুখী ফুলের বাগান দেখতে। অনেকেই বাগানে শখ করে ছবি তোলেন। চারিদিকে হলুদ রঙের ফুলের অপরূপ দৃশ্য। ফুলে ফুলে মধু সংগ্রহে ব্যস্ত মৌমাছির দল। 

কালিয়াকৈর গ্রামের সূর্যমুখী ফুলের চাষি শাহিন আলম জানান, আগে তিনি তার জমিতে বিভিন্ন ধরনের সবজির চাষ করতেন। এ বছর কৃষি অফিসারের পরামর্শে তিনি প্রথমবারের মতো সূর্যমুখী ফুলের চাষ করেছেন। কৃষি অফিস থেকে আমাদের বিনামূল্যে সূর্যমুখীর বীজ ও সার দেয়া হয়েছে। আশাকরি সূর্যমুখী চাষে সফলতা আসবে। 

কালিয়াকৈর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান, প্রথমবারের মতো এ বছর সরকারি অর্থায়নে পৌর এলাকাসহ  উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়নের ৪০ বিঘা জমিতে ৪০ জন কৃষক হাইসান-৩৩ জাতের সূর্যমুখী চাষ করছেন। এতে কৃষকরা লাভবান হবেন।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর