শিরোনাম
প্রকাশ : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৫:২৮
আপডেট : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৫:৩৪
প্রিন্ট করুন printer

কারাভোগ শেষে মিয়ানমার থেকে ফিরল বাংলাদেশি ২৪ নাগরিক

টেকনাফ (কক্সবাজার)

কারাভোগ শেষে মিয়ানমার থেকে ফিরল বাংলাদেশি ২৪ নাগরিক

পতাকা বৈঠক শেষে বাংলাদেশি ২৪ নাগরিককে সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবির কাছে হস্তান্তর করেছে মিয়ানমার। আজ মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ৯টায় মিয়ানমারের মংডুতে বিজিবি ও বিজিপির মধ্যে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এরপর সৌহার্দ্যপূর্ণ বৈঠকের পর বিজিবির কাছে তাদের হস্তান্তর করেছে বিজিপি।

বিজিবি জানায়, আজ মঙ্গলবার সকালে টেকনাফস্থ বিজিবির ২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খানের নেতৃত্বে ৯ সদস্য বিশিষ্ট বাংলাদেশ প্রতিনিধি মিয়ানমার যায়। 

এরপর, মিয়ানমারের অভ্যন্তরে ১নং এন্ট্রি/এক্সিট পয়েন্টের মংডুতে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে মিয়ানমারের ৭ সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে দেন ৪ নং বর্ডার গার্ড পুলিশ ব্রাঞ্চের পুলিশ লে. কর্ণেল জো লিং অং।

পতাকা বৈঠকের পর বাংলাদেশি নাগরিক বিভিন্ন সময়ে অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম করে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে গমণের অপরাধে বিজিপি কর্তৃক ধৃত কারাগারে সাজাভোগ ২৪ জনকে বিজিবির কাছে হস্তান্তর করা হয়। পরে দুপুর ২টায় দিকে বাংলাদেশর প্রতিনিধি দল ২৪ জনকে নিয়ে টেকনাফ জেটিঘাটে ফেরত আসে। 

কারাভোগ শেষে ফেরত আসা বাংলাদেশি ২৪ জনেই নাগরিকের মধ্যে টেকনাফের ১২ জন, রাঙামাটির ৮ জন, বান্দরবানের ৩ জন ও রাজশাহীর ১ জন।

এদিকে, ২৪ জনকে পুলিশের সহায়তায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার সমন্বয়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। কোয়ারেন্টাইন শেষে পুলিশের মাধ্যমে তাদেরকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলেও জানায় বিজিবি।


বিডি প্রতিদিন/ অন্তরা কবির 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:৫২
প্রিন্ট করুন printer

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে তিন কিশোর হত্যায় ১২ জন অভিযুক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে তিন কিশোর হত্যায় ১২ জন অভিযুক্ত
ফাইল ছবি

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে তিন ‘বন্দি’ কিশোর হত্যা মামলায় কেন্দ্রের চার কর্মকর্তাসহ আটজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেছে পুলিশ। একইসাথে এ ঘটনায় জড়িত অপ্রাপ্তবয়স্ক অপর চার শিশুর বিরুদ্ধে ‘দোষীপত্র’ দাখিল করা হয়েছে।

শুক্রবার যশোর আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা যশোর শহরের চাঁচড়া ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মো. রকিবুজ্জামান।

চার্জশিটে অভিযুক্ত চার কর্মকর্তা হলেন সাময়িক বরখাস্ত হওয়া সাবেক তত্ত্বাবধায়ক (সহকারী পরিচালক) আব্দুল্লাহ আল মাসুদ,  সহকারী তত্ত্বাবধায়ক (প্রবেশন অফিসার) মাসুম বিল্লাহ, ফিজিক্যাল ইন্সট্রাক্টর একেএম শাহানুর আলম ও সাইকো সোশ্যাল কাউন্সিলর মুশফিকুর রহমান।

এছাড়া যে বন্দি চার কিশোরের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়েছে তারা হলো গাইবান্ধার খালিদুর রহমান তুহিন, নাটোরের হুমাুন হোসেন, মোহাম্মদ আলী ও পাবনার ইমরান হোসেন। অপ্রাপ্তবয়স্ক অভিযুক্তরা হলো- চুয়াডাঙ্গার আনিস, কুড়িগ্রামের রিফাত হোসেন, রাজশাহীর পলাশ ওরফে শিমুল ও পাবনার মনোয়ার হোসেন।

তুচ্ছ ঘটনায় গত বছর ১৩ আগস্ট যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের ১৮ বন্দি কিশোরকে কর্মকর্তাদের নির্দেশে নিষ্ঠুর নির্যাতন চালানো হয়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় তিন কিশোর। আহত হয় ১৫ জন। এ ঘটনায় নিহত পারভেজ হাসান রাব্বির বাবা রোকা মিয়া বাদী হয়ে ১৩ জনকে আসামি করে যশোর কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন।

তদন্ত কর্মকর্তা ইন্সপেক্টর মো. রকিবুজ্জামান বলেন, এ ঘটনায় ১২ জনের সম্পৃক্ততার প্রমাণ পাওয়ায় তাদের মধ্যে ৮ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়েছে। চার বন্দি অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে দোষীপত্র দেওয়া হয়েছে। আসামিদের মধ্যে কারিগরি প্রশিক্ষক ওমর ফারুকের জড়িত থাকার প্রমাণ না পাওয়ায় তার অব্যাহতির আবেদন জানানো হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০৩
প্রিন্ট করুন printer

বেড়াতে গিয়ে প্রাণ গেল মোটরসাইকেল আরোহী দুই বন্ধুর

কক্সবাজার প্রতিনিধি

বেড়াতে গিয়ে প্রাণ গেল মোটরসাইকেল আরোহী দুই বন্ধুর
প্রতীকী ছবি

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলায় ট্রাকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী দুই বন্ধু নিহত হয়েছেন। এছাড়া আরও এক বন্ধু আহত হয়েছেন।

শুক্রবার রাত সাড়ে সাতটার দিকে উপজেলার কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বানিয়ারছড়ার মহেশখালী রাস্তার মাথা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন-চকরিয়া উপজেলার বরইতলী ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের নেজামউদ্দিনের ছেলে মো. ছোটন (২২) ও রামু উপজেলার গর্জানিয়া এলাকার আমির হোসেনের ছেলে শামসুল আলম (২০)।

আর আহত ব্যক্তির নাম মো. ফারুক। তিনি রামুর গর্জানিয়ার মো. হোসেনের ছেলে। হতাহতরা সবাই বানিয়ারছড়ার একটি গ্রীল ওয়ার্কশপের দোকানে শ্রমিক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার বিকেলের দিকে তিন বন্ধু মিলে মোটরসাইকেল নিয়ে হারবাংয়ের দিকে বেড়াতে যাচ্ছিল। তাদের মোটরসাইকেল বানিয়ারছড়ার আমতলী এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি পিকআপ (মিনি ট্রাক) জোরে ধাক্কা দেয়। এসময় ঘটনাস্থলে ছোটন মারা যায়।

পরে মোটরসাইকেল আরোহী শামসুল আলম ও ফারুককে স্থানীয়রা উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে শামসুল মারা যান। এসময় গুরুতর আহত ফারুককে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চকরিয়া উপজেলা মহাসড়কের চিরিংগা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এসআই সিরাজুল ইসলাম জানান, রাত সাড়ে সাতটার দিকে পিকআপের ধাক্কায় তিনজন মোটরসাইকেল আরোহী যুবক গুরুতর আহত হয়। তার মধ্যে দুজন মারা গেছেন।

আরেকজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘাতক পিকআপটি পালিয়ে যাওয়ায় জব্দ করা সম্ভব হয়নি। নিহতদের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২৩:৪৪
প্রিন্ট করুন printer

বাঘের মতো মরতে চাই : কাদের মির্জা

অনলাইন ডেস্ক

বাঘের মতো মরতে চাই : কাদের মির্জা
বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। ফাইল ছবি

সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যাকাণ্ডের ন্যায় বিচারের স্বার্থে জুডিশিয়াল তদন্তের দাবি জানিয়ে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেছেন, শিয়ালের মতো মৃত্যু চাই না। সিংহের গর্জন করে বাঘের মতো মরতে চাই।

শুক্রবার বিকেলে নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভা মিলনায়তনে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নিয়ে জনসচেতনতামূলক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

কাদের মির্জা বলেন, সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যার ন্যায়বিচার না হলে, বিচারের নামে জজ মিয়া নাটক করা হলে, আমার কর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করা না হলে এবং আমার আটক চার নেতাকর্মীকে মুক্তি দেওয়া না হলে কোম্পানীগঞ্জে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি হবে।

আর এর দায়ভার নোয়াখালী জেলার ডিসি, এসপি, কোম্পানীগঞ্জের ইউএনও এবং কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসিকে নিতে হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

বসুরহাট পৌরসভার মেয়র বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা পেয়ে দলীয় কর্মকাণ্ড স্থগিত থাকায় করোনা ভ্যাকসিন জনসচেতনতামূলক সমাবেশ করছি। 

তিনি বলেন, বাড়ি বাড়ি গিয়ে করোনা ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য জনগণকে উদ্বুদ্ধ করবেন। আর আমি যে যে ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দিয়েছি সেসব প্রার্থীর পক্ষে ভোট চাইবেন।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২২:২৯
প্রিন্ট করুন printer

নেত্রকোনায় বিসিক শিল্প মেলার উদ্বোধন

নেত্রকোনা প্রতিনিধি:

নেত্রকোনায় বিসিক শিল্প মেলার উদ্বোধন

নেত্রকোনায় ১৫ দিনব্যাপী বিসিক শিল্পমেলা ২০২১ শুরু হয়েছে। সদর উপজেলার চল্লিশা ইউনিয়নের রাজেন্দ্রপুর এলাকায় বিসিক শিল্প নগরীতে এই মেলার আয়োজন করা হয়েছে।

শুক্রবার বিকালে মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বিসিক জেলা কার্যালয়।

জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় মেলা উপলক্ষে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বিসিকের চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত সচিব) মো. মোশতাক হাসান।

জেলা প্রশাসক কাজি মো. আবদুর রহমানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মো. আকবর আলী মুনসী,  শিল্প মন্ত্রণালয়ের উপ সচিব মোস্তাক আহমেদ ও নেত্রকোনা বিসিকের ম্যানেজার আক্রাম হোসেন। 

শিল্প মেলা হলেও মেলায় প্রথম দিনেই শিশুদের খেলনা সামগ্রীর স্টলই ছিলো লক্ষ্যনীয়। 

মেলায় মোট একশত স্টল বসানোর কথা রয়েছে। মোট ৫১ টি দোকানের প্যান্ডেল রয়েছে। মেলা চলবে আগামী ১২ মার্চ পর্যন্ত। 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বিসিকের চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত সচিব) মো. মোশতাক হাসান বলেন, দেশের বিভিন্ন জেলার চেয়ে নেত্রকোনা বিসিক পিছিয়ে রয়েছে। যে কারণে এই এলাকাকে শিল্পে উন্নত করতে হবে। মূলত মার্কেটিং করার জন্য এই মেলার আয়োজন। 


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২২:০৬
আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২২:০৭
প্রিন্ট করুন printer

হাত-পা বেঁধে যুবককে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরালের পর মামলা

বাগেরহাট প্রতিনিধি:

হাত-পা বেঁধে যুবককে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরালের পর মামলা
অভিযুক্ত চিংড়াখালী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের সদস্য সোহেল খান

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার পল্লীতে আশিক জোমাদ্দার (২৫) নামে এক যুবককে হাত-পা বেঁধে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ার পর ভাইরাল হয়েছে। চিংড়াখালী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের সদস্য সোহেল খান এ নির্যাতন করেন বলে অভিযোগ।

হাত-পা বেঁধে নির্যাতনে গুরুতর আহত আশিক জোমাদ্দারকে মোরেলগঞ্জ উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার রাতে মোরেলগঞ্জ থানায় মামলা দায়েরের পর বড় জামুয়া গ্রামের খলিল খানের ছেলে ইউপি সদস্যে সোহেল খানের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে কয়েকটি রামদা ও হকি ষ্টিক উদ্ধার করেছে পলিশ। তবে, পুলিশি অভিযানের আগেই বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে ইউপি সদস্য।

পুলিশ জানায়, বাগেরহাট জেলার পার্শ্ববর্তী পিরোজপুরের জিয়ানগর উপজেলার চরনী পর্ত্তাসী গ্রামের কবির আকনের ছেলে আবদুস সবুর আকনের একটি মোবাইল ফোন মঙ্গলবার চুরি করে নেয় ইউপি সদস্য সোহেল খানের ছোট ভাই রুবেল খান। চুরি যাওয়া মোবাইল ফোনটি উদ্ধারের জন্য বুধবার দুপুরে রুবেলের বড়ভাই এবং ইউপি সদস্য সোহেল খানের বসতবাড়ি যান মোবাইল মালিক আবদুস সবুরের বন্ধু চরনী পর্ত্তাসী গ্রামের আশিক জোমাদ্দার। বিষযটি সোহেল খানকে অবহিত করে মোবাইল ফোনটি উদ্ধারের দাবি করলে তা নিয়ে আাশিক ও সোহেল খানের মধ্যে কথা কাটাকাটির সৃষ্টি হয়। কথা কাটাকাটি ও বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে সোহেল খানের নির্দেশে তার ক্যাডার বাহিনী আশিককে আটক করে তার হাত-পা বেঁধে ফেলে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করে ফেলে রাখে। পরে স্থানীয়রা গুরুতর আহত আশিককে উদ্ধার করে মোরেলগঞ্জ উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

এদিকে ওই সময়ে আশিক জোমাদ্দারকে হাত-পা বেঁধে নির্যাতনের দৃশ্যটি কেউ একজন মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করে বৃহস্পতিবার ‘চিংড়াখালী বাজার’ নামক একটি আইডি থেকে তা ফেসবুকে পোষ্ট দিলে মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়। হাত-পা বেঁধে নির্যাতনের দৃশ্যটি ফেসবুকে ভাইরাল হবার পর পুলিশ প্রশাসনের টনক নড়ে। 

মোরেলগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম জানান, হাত-পা বেঁধে নির্যাতনের দৃশ্যটি ফেসবুকে ভাইরাল হবার পর একাধিক মামলার আসামি সোহেল খান ও তার সহযোগীদের নামে মামলা দায়ের করেছি। পুলিশ সন্ত্রাসী ইউপি সদস্য সোহেলের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে কয়েকটি রামদা ও হকি ষ্টিক উদ্ধার করেছি। সোহেলকে আটকের জন্য পুলিশ অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর