শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ মার্চ, ২০২১ ১৭:৩২
প্রিন্ট করুন printer

পোশাক শ্রমিককে হত্যার হুমকি দিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি

পোশাক শ্রমিককে হত্যার হুমকি দিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ
প্রতীকী ছবি

গাজীপুরের শ্রীপুরে বান্ধবীর বাড়িতে বেড়াতে এসে পোশাক শ্রমিক এক কিশোরীকে হত্যার হুমকি দিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় কিশোরী বাদী হয়ে শ্রীপুর থানায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযুক্ত দুজনকে গ্রেফতার করে শুক্রবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। বৃহস্পতিবার মধ্য রাতে উপজেলার মাওনা উত্তরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

অভিযুক্তরা হলেন উপজেলার কাওরাইদ ইউনিয়নের ধামলই গ্রামের মজনু মিয়ার ছেলে সুজন (২৪), মাওনা উত্তরপাড়া গ্রামের সজল মাস্টারের বাড়ির কেয়ারটেকার দুলু মিয়া (৪৫) ও বাবুল (৪৮) এবং তেলিহাটি ইউনিয়নের মুলাইদ গ্রামের মুন্না মিয়া (২২)। 
মামলার এজাহারে জানা যায়, মাওনা উত্তর পাড়া এলাকার একটি বাড়িতে পোশাক শ্রমিক কিশোরীর বান্ধবী ভাড়া থাকে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর ওই কিশোরী ময়মনসিংহের ভালুকা থেকে তার বান্ধবীর বাসায় বেড়াতে আসে। রাত আনুমানিক ২টায় বাড়ির কেয়ারটেকার দুলু ও বাবুল কিশোরীকে জোরপূর্বক বান্ধবীর ঘর থেকে বের করে পাশের একটি কক্ষে আটকে রাখেন। সেখানে তাদের দুই সহযোগী সুজন ও মুন্না কিশোরীকে হত্যার হুমকি দিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন। কিশোরী জানায়, অভিযুক্তরা তার বান্ধবীর ঘর থেকে প্রায় দেড় লাখ টাকার স্বর্ণালঙ্কার ও মোবাইল ফোনও লুটে নেয়।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খোন্দকার ইমাম হোসেন, কিশোরীকে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তদের মধ্য সুজন ও বাবুলকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। তাদের সহযোগী অপর দু’জনকে গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন

এই বিভাগের আরও খবর