শিরোনাম
প্রকাশ : ২৮ মার্চ, ২০২১ ২০:৪০
প্রিন্ট করুন printer

বাগেরহাটে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত ৫

বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত ৫
হামলায় আহত ডালিম হাওলাদার (বাঁয়ে) ও নাছির বয়াতী।

বাগেরহাটের শরণখোলার সাউথখালীতে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আবারও সংঘর্ষ হয়েছে। শনিবার দিবাগত রাতে ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মধ্য চালিতাবুনিয়া গ্রামে মেম্বর প্রার্থী জাহাঙ্গীর খলিফা ও জাফর তালুকদারের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এতে উভয়পক্ষের এক নারীসহ পাঁচজন আহত হয়েছেন। এনিয়ে গত এক সপ্তাহে শরণখোলার সাউথখালী ইউনিয়নে পাঁচটি নির্বাচনী সহিংসতার ঘটনা ঘটলো।

আহতরা হলেন-জাহাঙ্গীর খলিফার (বর্তমান মেম্বর) কর্মী নাছির বয়াতী (৪৫), ইমাম বয়াতী (২৩), রিয়াজ হাওলাদার (২৫) এবং প্রতিদ্বন্দ্বী জাফর তালুকদারের কর্মী ডালিম হাওলাদার (২৮) ও তার স্ত্রী আসমা বেগম (২০)। আহতদের শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

মেম্বর প্রার্থী মো. জাহাঙ্গীর খলিফা জানান, তিনি তার কর্মীদের নিয়ে স্থানীয় একটি মন্দিরে পূজা অনুষ্ঠানে অংশ নেন। পূজা শেষে মধ্যরাতে ফেরার পথে মধ্য চালিতাবুনিয়া গ্রামের সাইয়েদ মিয়ার বাড়ির সামনে এলে প্রতিপক্ষ প্রার্থীর লোকেরা তাদের ওপর হামলা চালায়। তারা হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে তার কর্মীদের আহত করে।

প্রতিপক্ষ প্রার্থী মো. জাফর তালুকদার পাল্টা অভিযোগ করে জানান, ওইরাতে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা সাইয়েদ মিয়ার বাড়িতে তার নির্বাচনী বৈঠক চলছিল। এসময় জাহাঙ্গীরের লোকেরা সেখানে গোপনে আড়ি পাতে। তাই দেখার পরে প্রতিবাদ করলে তারা মারধর শুরু করে।

শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইদুর রহমান জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ টহলে রয়েছে। মামলা দিলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, শরণখোলা উপজেলার চারটি ইউনিয়নের মধ্যে শুধু সাউথখালীতেই গত ১৯ মার্চ থেকে অগ্নিসংযোগসহ এখন পর্যন্ত পৃথক পাঁচটি সহিংস ঘটনা ঘটে। এতে পক্ষ-বিপক্ষে আহত হন ৩৭ জন। পাল্টাপাল্টি তিন মামলায় আসামি করা হয়েছে ৮০ জনকে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর