শিরোনাম
প্রকাশ : ৩ জুন, ২০২১ ১০:০৮
প্রিন্ট করুন printer

হবিগঞ্জে হত্যা মামলার জেরে প্রতিপক্ষের বাড়িতে ভাঙচুর

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:

হবিগঞ্জে হত্যা মামলার জেরে প্রতিপক্ষের বাড়িতে ভাঙচুর
Google News

হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার প্রথমরেখ গ্রামে জমিতে দু’পক্ষের সংঘর্ষে হোসাইন আহমদ নিহতের ঘটনায় প্রতিপক্ষের জনশূন্য বাড়িতে ব্যাপক ভাঙচুর লুটপাট করা হয়েছে। লুট করে নিয়ে গেছে ধান, চাল, গরু, বাছুরসহ মালামাল। এ ব্যাপারে ক্ষতিগ্রস্তরা মামলা দায়ের করলেও পুলিশ ভাঙচুর ও লুটপাট মামলার আসামিদের গ্রেফতার করছে না বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে পুলিশ বলছে, বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাটের মামলার তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বানিয়াচং উপজেলা সদরের প্রথমরেখ গ্রামের সামায়ুন মিয়ার সাথে একই গ্রামের সোহেল মিয়া গংদের জমি-জমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। গত ১৯ এপ্রিল দুপুরে সোহেল মিয়ার হাঁস সামায়ূন মিয়ার জমিতে গিয়ে ধান খেয়ে ফেলে। এ সময় সামায়ূন মিয়ার পক্ষের লোকজন হাঁসগুলোকে আঘাত করে পা ভেঙ্গে দেয়। এ নিয়ে সামায়ূন মিয়া ও সোহেল মিয়ার মাঝে কথা কাটাকাটি হয়। পরবর্তীতে স্থানীয় মুরুব্বীয়ান বিষয়টি নিষ্পত্তি করে দেন। এর মধ্যে এ ঘটনার জের ধরে সোহেল মিয়ার শ্যালক নূরুল হককে মারধোর করে সামায়ূন গং। পরদিন ২০ এপ্রিল দুপুরে এ ঘটনার জের ধরে আবারও উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষের খবর পেয়ে সামায়ূন মিয়ার চাচা হোসাইন আহমদ তাদের ফেরাতে যান। এ সময় হঠাৎ করে তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন। সাথে সাথে তাকে হবিগঞ্জ আড়াইশ’ শয্যা জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্মরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পরে হাসপাতালের মর্গে হোসাইন আহমদের লাশের ময়না তদন্ত শেষে প্রথমরেখ গ্রামে নিয়ে দাফন সম্পন্ন করা হয়। 

পরবর্তীতে হোসাইন আহমদের ছেলে হাফিজুর রহমান সুজন বাদী হয়ে মিয়া হোসেনকে প্রধান আসামি করে ২৬ জনের বিরুদ্ধে বানিয়াচং থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। হত্যা মামলা দায়েরের পর আসামিপক্ষের লোকজন গ্রেফতার এড়াতে বাড়িঘর ছেড়ে অন্যত্র চলে যান। এর পরই আসামিদের বাড়িতে তান্ডব শুরু করা হয়। মহিলা ও শিশুদের উপর অমানুষিক নির্যাতন ও শ্লীলতাহানির ঘটনা ঘটায় সামায়ুন মিয়া ও তার চাচা নুর আহম্মদ গং। এতে ভয়ে বাড়িঘর ছেড়ে এলাকা থেকে পালিয়ে যায় আসামিদের স্বজনরা।

এ ব্যাপারে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ মো. এমরান হোসেন জানান, বাড়িঘর ও লুটপাট মামলাটি এফআইআরভুক্ত করেছি। এ ব্যাপারে তদন্ত সাপেক্ষে আসামিদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার