শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ জুলাই, ২০২১ ২০:৪০
প্রিন্ট করুন printer

কিশোরীকে অপহরণে রাজি না হওয়ায় অটোচালককে খুন

কুমিল্লা প্রতিনিধি

কিশোরীকে অপহরণে রাজি না হওয়ায় অটোচালককে খুন
Google News

কিশোরীকে অপহরণে রাজি না হওয়ায় কুমিল্লার মুরাদনগরে বখাটেদের হাতে আব্দুল জলিল (৩৫) নামে এক অটোচালক খুন হয়েছেন। তিনি উপজেলার নবীপুর পশ্চিম ইউনিয়নের কুলুবাড়ি গ্রামের মৃত সাজত আলীর ছেলে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী শাহনাজ বেগম বাদী হয়ে মুরাদনগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। শনিবার তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

মৃত্যুর পূর্বে জলিল স্বজনদের কাছে ভিডিওতে তার খুনিদের ব্যাপারে বলেন, আমি তাদের চিনি তবে এই মুহূর্তে নাম মনে পড়ছে না। একজনের বাড়ি থোল্লা তার মামার বাড়ি গুঞ্জর, সে কোম্পানীগঞ্জ বাজারে বাথরুমের টাকা ওঠায়। ইয়াছিনের সাথে বেশি সময় থাকে। আরেকজনের বাড়ি মুরাদনগর উত্তর পাড়া।

সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টায় ৩ জন যাত্রী অটোচালক আব্দুল জলিলের গাড়িতে উঠে। তারা তাকে কোম্পানীগঞ্জ বাজার থেকে যাত্রাপুর গ্রামে নিয়ে যায়। সেখানে গিয়ে ভাড়া না দিয়ে বলে তুমি থাক আমরা একটা মেয়েকে তুলে নিব। অটোচালক তাদের প্রস্তাবে রাজি না হয়ে বলে, আমি চলে যাব ভাড়াটা দিয়ে দেন। এই নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তারা কোমর থেকে ছুরি বের করে আব্দুল জলিলের পেটে আঘাত করে। জীবন বাঁচাতে অটোচালক দৌঁড়ে বাঁচাও বাঁচাও বলে চিৎকার করে পাশের এক বাড়িতে গিয়ে লুটিয়ে পড়েন। চিৎকার শুনে বাড়ি থেকে লোকজন বেরিয়ে এসে রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক রাতেই তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। শনিবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আব্দুল জলিল মারা যান। 
মুরাদনগর থানার অফিসার ইনচার্জ সাদেকুর রহমান বলেন, নিহতের স্ত্রী শাহনাজ বেগম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। ইয়াসিন নামে একজনকে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। খুনের সাথে জড়িতদের শনাক্ত করতে আমরা কাজ করছি। 

বিডি-প্রতিদিন/ সালাহ উদ্দীন

এই বিভাগের আরও খবর