শিরোনাম
প্রকাশ : ২১ জুলাই, ২০২১ ২৩:৫২
আপডেট : ২২ জুলাই, ২০২১ ০৫:০৪
প্রিন্ট করুন printer

ফুলপুরে মাছ ধরা ও জাল চুরির ঘটনায় ব্যবসায়ী খুন, গ্রেফতার ৪

ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

ফুলপুরে মাছ ধরা ও জাল চুরির ঘটনায় ব্যবসায়ী খুন, গ্রেফতার ৪
প্রতীকী ছবি
Google News

ফুলপুরে মাছ ধরা ও জাল চুরির ঘটনায় সংঘর্ষে রুহুল আমিন (৪৫) নামে এক বালু ব্যবসায়ীকে খুনের মামলায় ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

বুধবার (২১ জুলাই) ফুলপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুনের দিক নির্দেশনায় ও এসআই জাহিদ হাসান সবুজের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম অভিযান চালিয়ে রাজধানী ঢাকা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। 

গ্রেফতারকৃত আসামিরা বর্তমানে ফুলপুর থানা হেফাজতে রয়েছে। তাদেরকে সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি দেওয়ার দাবিতে সন্ধ্যায় থানা গেটে শতাধিক লোক জড়ো হয়েছিল। পরে তাদের তদন্তপূর্বক সুষ্ঠু ও ন্যায় বিচারের আশ্বাস দিলে তারা স্থান ত্যাগ করে। 

জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই জাহিদ হাসান সবুজ ঈদ উপলক্ষে কয়েক ঘণ্টার জন্যে  টুপি ও আতর বিক্রেতার ছদ্মবেশ ধারণ করে আসামি ইয়াসীন ও তার ছেলে ফুল চানকে টঙ্গীর তুরাগ পূর্ব বাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করেন। মাথায় পরচুলা লাগিয়ে একই ব্যবসার ছদ্মবেশ ধারণ করে টুপি বিক্রি করার ছলে ইয়াসীনের অপর দুই ছেলে লাল চান ও বাবুলকে ঢাকার আদাবর এলাকা থেকে গ্রেফতার করেন তিনি। গ্রেফতারকৃত সকলেই ফুলপুর উপজেলার সদর ইউনিয়নের ঠাকুর বাখাই গ্রামের বাসিন্দা। 

উল্লেখ্য, গত বুধবার (১৪ জুলাই) উপজেলার সদর ইউনিয়নের নাকানন্দী মসজিদের পশ্চিম পাশের ব্রিজ সংলগ্ন খালে জাল ফেলা নিয়ে ঝগড়া হয়। পরে ওই রাতে রুহুলের খড়া জাল চুরি হয়ে যায়। এ নিয়ে পরের দিন বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) বেলা ২টার দিকে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে মারামারি হয়। এতে রুহুল নিহত হন। 

এসময় রুহুলের স্ত্রী রাজিয়া, ছেলে ঠাকুর বাখাই ময়েজ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্র রিফাত, মামাত ভাই হাফিজুল, হাফিজুলের স্ত্রী জনি, হাফিজুলের বড়ভাই সিদ্দিক ও সিদ্দিকের স্ত্রী শামছুন্নাহার আহত হন। নিহত রুহুল আমিন পার্শ্ববর্তী হালুয়াঘাট উপজেলার স্বদেশী ইউনিয়নের গাজীপুর গ্রামের আক্কাস আলী মেম্বারের ছেলে। 

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই জাহিদ হাসান জানান, টুপি ও আতর বিক্রেতার ছদ্মবেশ ধারণ করে তাদের কাছাকাছি হই ও এক পর্যায়ে গ্রেফতার করতে সক্ষম হই।

এর আগেও এই এসআই লুঙ্গি পরে গামছা বিক্রির ছলে অভিনব কায়দায় এক অপহারণকারী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে তুরাগ থানার কামারপাড়া থেকে গ্রেফতার করেছিলেন। 

ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন খুনের আসামীদের গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তাদেরকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করে এনে ফুলপুর থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) তাদেরকে ময়মনসিংহের বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হবে।  
 

বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ আল সিফাত

এই বিভাগের আরও খবর