শিরোনাম
প্রকাশ : ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৭:১৩
প্রিন্ট করুন printer

খাটের নিচ থেকে বৃদ্ধার রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার

নওগাঁ প্রতিনিধি

খাটের নিচ থেকে বৃদ্ধার রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার
প্রতীকী ছবি
Google News

নওগাঁর মান্দায় ঘরের খাটের নিচ থেকে এক বৃদ্ধার রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার নুরুল্লাবাদ ইউনিয়নের পার-নুরুল্লাবাদ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ওই বৃদ্ধার নাম আকলিমা বেগম (৭০)। তিনি ওই গ্রামের মৃত নুর উদ্দিনের স্ত্রী। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বৃদ্ধার পুত্রবধূ লাইলী বেগমকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে নিহত বৃদ্ধার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও নিহত বৃদ্ধার স্বজনদের সূত্রে জানা যায়, আকলিমা বেগমের তিন ছেলে ও দুই মেয়ে। তিনি তার ছোট ছেলে আবু তালেবের বাড়িতে থাকতেন। মেজ ছেলে আজিজুল ইসলাম ঢাকায় ব্যক্তিগত গাড়ির চালক হিসেবে কাজ করায় তার স্ত্রী লাইলী বেগম বাড়িতে একাই থাকেন। গত বৃহস্পতিবার লাইলী তার বাবার বাড়ি জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে বেড়াতে যাওয়ার সময় বাড়ি দেখাশোনার জন্য শাশুড়িকে বাড়িতে একা রেখে যান।

সোমবার বিকেল ৩টার দিকে লাইলী বাড়ি ফিরে সদর দরজা তালাবদ্ধ দেখে আশপাশের বাড়িতে শাশুড়ির খোঁজ করেন। কোনো খোঁজ না পেয়ে সন্ধ্যার দিকে দরজার তালা ভেঙে লাইলী বাড়ির ভেতরে ঢোকেন। এরপর তিনি শাশুড়িকে শোয়ার ঘরের খাটের নিচে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পান। রাত ৮টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত বৃদ্ধার বড় ছেলে আবুল কাসেম বলেন, মাকে হত্যা করে খুনিরা বাড়ির বাইরে থেকে দরজায় তালা মেরে চলে গেছে। কী কারণে, কে আমার মাকে হত্যা করেছে, সেটি কিছুই আন্দাজ করতে পারছি না।

মান্দা থানার ওসি শাহিনুর রহমান জানান, দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে ওই বৃদ্ধাকে হত্যা করে লাশ ঘরের খাটের নিচে ফেলে যায়। রাত ৮টার দিকে নিহত বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার করে থানায় নেওয়া হয়। মঙ্গলবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি নওগাঁ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় রাতেই নিহত বৃদ্ধার পুত্রবধূ লাইলী বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর