৭ ডিসেম্বর, ২০২১ ২২:২১

চকরিয়ায় ইউপি নির্বাচনে ৫০৬ প্রার্থীর মাঝে প্রতীক বরাদ্দ

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি

চকরিয়ায় ইউপি নির্বাচনে ৫০৬ প্রার্থীর মাঝে প্রতীক বরাদ্দ

কক্সবাজারের চকরিয়ায় চতুর্থ দফায় ৮ ইউপি নির্বাচনে প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার ছিল প্রতীক বরাদ্দের শেষ দিন। এসব ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৪৯, সংরক্ষিত নারী পদে ১০২ ও সাধারণ সদস্য পদে ৩৫৫ জনসহ সর্বমোট ৫০৬ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের ৮ জন, জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীকের ২ জন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হাতপাখা প্রতীকে ২ জন ও ৩৭ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন। 

তারা হলেন চিরিঙ্গা ইউনিয়নে কেএম সালাহউদ্দিন (মোটরসাইকেল), জসিম উদ্দিন (চশমা), জামাল হোসেন চৌধুরী (আনারস), নাজের হোছাইন (হাতপাকা), মো. করিম (ঘোড়া) ও মো. শাহনেওয়াজ রুমেল (নৌকা)। ফাঁশিয়াখালী ইউনিয়নে নাসির উদ্দিন (মোটরসাইকেল), বদরুচ্ছালাম (লাঙ্গল), মো. কুতুব উদ্দিন (আনারস), শওকত ইসলাম (চশমা), হামিদ হোসেন (টেলিফোন) ও হেলাল উদ্দিন (নৌকা)। বমুবিলছড়ি ইউনিয়নে আবদুল মতলব (চশমা), মনজুরুল কাদের (নৌকা) ও মো. কফিল উদ্দিন (আনারস)।

ডুলাহাজারা ইউনিয়নে এমরানুল হক (রজনীগন্ধা), কলিম উল্লাহ (টেলিফোন), গিয়াস উদ্দিন (চশমা), নুরুল আমিন (লাঙ্গল), মো. মাহবুবুর রহমান (মোটরসাইকেল), মোস্তাফিজুর রহমান (টেবিল ফ্যান), মো. নাঈম (ঢোল), মো. সেলিম (অটোরিক্সা), শাহনেওয়াজ তালুকদার (নৌকা), হাসানুল ইসলাম আদর (আনারস) ও সোহেল মাহমুদ (ঘোড়া)। বরইতলী ইউনিয়নে এটিএম জিয়াউদ্দীন চৌধুরী জিয়া (নৌকা), জালাল আহমদ সিকদার ( আনারস), মো. ছালেকুজ্জামান (চশমা) ও রফিক আহমদ সিদ্দিকী (ঘোড়া)।

হারবাং ইউনিয়নে ছৈয়দ নূর (মোটরসাইকেল), জহির উদ্দিন আহমদ বাবর (আনারস), জয়নাল আবেদীন (রজনীগন্ধা), জাহেদুল ইসলাম (চশমা), বোরহান উদ্দিন (দুটি পাতা), মুরাদ উদ্দিন চৌধুরী (টেলিফোন), মেহেরাজ উদ্দিন (নৌকা), মো. শোয়াইব (ঘোড়া), সাইদুল ইসলাম (অটোরিক্সা) ও ছাবের আহমদ (টেবিল ফ্যান)। খুটাখালী ইউনিয়নে আজিজুল হক (হাতপাকা), এস এম মনজুর আলম (আনারস), মুহাম্মদ আবদুর রহমান (মোটরসাইকেল), মো. বেলাল (নৌকা), মো. কায়েস (ঘোড়া) ও মো. রিহাবুল আলম (চশমা)। 

সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আজিমুল হক আজিম। এদিকে ওই ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী ডা. ফেরদৌস আহমদ প্রার্র্থীতা ফিরে পেতে হাইকোর্টে আপিল করেছেন। নিষ্পত্তি না হওয়ায় তাকে এখনো প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়নি। চকরিয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, প্রতীক বরাদ্দের পর থেকে প্রার্থীরা আচরণবিধি মেনে প্রচারণা চালাতে পারবেন। উল্লেখ্য, ২৬ ডিসেম্বর চতুর্থ দফায় ৮ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন হবে। 
 
বিডি প্রতিদিন/এএ

 

সর্বশেষ খবর