শিরোনাম
২১ জানুয়ারি, ২০২২ ১৩:৫৩

ছাত্র বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

ছাত্র বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেফতার

প্রতীকী ছবি

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলায় শিক্ষক কর্তৃক মাদ্রসার এক ছাত্র বলাৎকারের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভুক্তভুগী ছাত্রের বয়স ৯ বছর। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত শাকিল আহম্মেদ (২০) নামে ওই মাদ্রাসা শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে। 

গ্রেফতারকৃত শাকিল আহম্মেদকে আজ শুক্রবার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাক আহম্মেদ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বাসুপাড়া ইউনিয়নের একটি হাফেজিয়া মাদ্রাসায় দীর্ঘদিন থেকে শিশুদের কোরআন শিক্ষা দেওয়া হয়। ওই মাদ্রাসায় শিশুদের কোরআন শিক্ষা দেয়ার জন্য দুই জন শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল। মাদ্রাসাটিতে শিক্ষার্থীদের রাতে থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা করেন মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার (১৯ জানুয়ারি) রাতে শিক্ষক শাকিল আহম্মেদ ওই শিক্ষার্থীকে তার ঘুমানোর কক্ষে ডেকে আনে। এবং জোরপূর্বক বলাৎকার করে। এক পর্যায়ে শিক্ষার্থী কান্নকাটি শুরু করলে তাকে ঘটনাটি কাউকে না জানানোর জন্য ভয়ভীতি দেখায়। শিশু শিক্ষার্থী বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) কৌশলে বাড়িতে যায় এবং ঘটনাটি পরিবারের সদস্যদের জানায়।

বিষয়টি জানাজানি হলে তদন্তে নামে বাগমারা থানার পুলিশ। তদন্তে ঘটনার সত্যতা মিললে বৃহস্পতিবার মাদ্রাসায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক শাকিল আহম্মেদকে গ্রেফতার করা হয়। রাতেই বাদী হয়ে শিশুটির পিতা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। অভিযুক্ত শিক্ষক শাকিল আহম্মেদকে আজ শুক্রবার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়।

এ ব্যাপারে বাগমারা থানার ওসি মোস্তাক আহম্মেদ জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাবাদে অভিযুক্ত শিক্ষক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। সকালেই তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর