Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৮:৪২
আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৩:৪১

রিয়াদে মঞ্চস্থ হল নাটক 'রেমিটেন্স যোদ্ধা'

সৌদি আরব প্রতিনিধি:

রিয়াদে মঞ্চস্থ হল নাটক 'রেমিটেন্স যোদ্ধা'

নজরুলরা এক ভাই এক বোন। মধ্যবিত্ত পবিবারের বেড়ে উঠা নজরুলের শৈশব কাটে এলাকার বন্ধুদের সাথে খেলাধুলা করে। এরইমাঝে নিজের ভবিষ্যৎ, পরিবারের সচ্ছলতা আর ছোট বোনের কথা চিন্তা করে নজরুল পাড়ি জমায় মধ্যপ্রাচ্যের তেল সমৃদ্ধ দেশ সৌদি আরবে।

এখানে এসে একটি টেক্সি কোম্পানীতে কাজ পায় নজরুল। ভালোই চলতে থাকে নজরুলদের পরিবার। এদিকে ছোট বোন আমেনার বিয়ের জন্য প্রস্তাব নিয়ে আসেন এলাকার মাস্টার। ছেলে ভালো মেয়েও বড় হয়েছে এসব দিক বিবেচনা করে নজরুলের সাথে পরামর্শ করে মেয়ে আমেনাকে বিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় তার পরিবার।

বিদেশি ভাই এর একমাত্র বোনের বিয়ে হবে ধূমধাম করে। তার জন্য নজরুল তার বন্ধুদের সহযোগিতা চায় এবং নিজেও ডিউটি বাড়িয়ে অতিরিক্ত টাকা রোজগারের সিদ্ধান্ত নেয়। বোনের বিয়ের কথা চিন্তা করে রাতদিন গাড়ি চালাতে থাকে সে। আর তখনই গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা যায় নজরুল। থমকে যায় আমেনার বিয়ে।

দেশে খবর পৌঁছার পর কয়েকদিন কান্নাকাটি করেই দায় শেষ করে তার পরিবার। নজরুলের লাশ দেশে আনার আনুসাঙ্গিক খরচের কথা চিন্তা করে লাশ দেশে আনার প্রয়োজনও অনুভব করেনি তার পরিবার। স্থানীয়ভাবে দাফন করা হয় তাকে।

ঘটনার তিনমাস পেড়িয়ে যাওয়ার পর নজরুলকে ভুলে যায় তার পরিবার। আমেনার বিয়ে হয় আগের ঠিক করা পাত্রের সাথে। এভাবেই হারিয়ে যায় একজন প্রবাসী এবং পরিবার এবং দেশের জন্য তার সেক্রিফাইসের কথা।

এদিকে প্রবাসে মৃত্যুবরণকারী নজরুলদের প্রতি তাদের পরিবার এবং রাষ্ট্রের অবহেলা। সারাজীবন টাকা দেয়ার পরেও তারা মারা যাওয়ার পর সামান্য টাকার জন্য তাদের লাশটা দেশে ফেরত নিতে অনাগ্রহের জন্য নজরুলদের বিদেহী আত্মা আর্তনাদ করতে থাকে। তাদেরও স্বপ্ন থাকে আর কিছু পাক বা না পাক মৃত্যুর পর লাশটা দেশে যাবে কবর দেয়া হবে পারিবারিক কবরস্থানে। আর কোন কারণে না হোক কবর দেখলে মনে পরবে নজরুলদের কথা।

এমনই একটি প্রেক্ষাপট নিয়ে রিয়াদের একটি অডিটোরিয়ামে প্রবাসী কুমিল্লা সোসাইটির নবম বর্ষে পদার্পন ও নতুন কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠানে মঞ্চস্থ হয় রিয়াদ বাংলাদেশ থিয়েটারের নাটক রেমিটেন্স যোদ্ধা।

নাটকটি লিখেছেন রাশেদ আল করিম সজিব। নির্দেশনায় ছিলেন থিয়েটার আর্ট ইউনিটের আজীবন সদস্য সারোয়ার জাহান সিদ্দিকী। কোরিওগ্রাফি করেছেন কামরুজ্জামান।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য