শিরোনাম
প্রকাশ : ২৯ মার্চ, ২০২০ ১৭:৫২

প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার নোংরা খেলার সময় এখন না

পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ এমপি

প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার নোংরা খেলার সময় এখন না
পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ

নিকট ভবিষ্যৎ কেমন হবে? কেউ জানেনা। ভয়-শঙ্কা। যদিও এমন কঠিন বাস্তবতার মুখেও রাজনীতির অর্বাচীন নষ্ট বালকদের মানসিকতায় পরিবর্তন নেই। তবে সংবেদনশীল মানুষেরা চিন্তিত। উন্নত দেশে মানুষের মৃত্যু আর চিকিৎসার অবস্থা দেখে শঙ্কিত সবাই।

বৃটেনের মত দেশে প্রতি ৬ মিনিটে একজন মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছে। আমাদের ঘন বসতির দেশে যদি এমন হয় কি হবে আমাদের। আজকে হয়ত বগুড়ায় একজন চিকিৎসা না পেয়েই ঘরে মারা গেলেন। আর সিলেটের রাস্তায় এক বিদেশীর অজ্ঞান হয়ে রাস্তায় পড়ে থাকার ঘটনা সংবাদ হয়েছে। বিষয়টি বুঝতে হবে।

প্রথম রোগী সনাক্তের পর আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ হতে সময় লেগেছিল ৬৭ দিন। একলাখ থেকে ২ লাখ হতে সময় লেগেছিল মাত্র ১১দিন। আর ২ লাখ থেকে রোগী ৩ লাখে পৌঁছেছিল মাত্র ৪দিনে। আমাদের দেশে যদি আরও ব্যাপক হয়? চিকিৎসা পাবতো? শঙ্কা থাকাই স্বাভাবিক।

এখন আর ভুল খুজে লাভ নেই। সময় কম। যেখানে দাঁড়িয়ে আছি সেখান থেকেই দ্রুত প্রস্তুতির প্রয়োজন। আজকে যারা চিকিৎসা আর প্রশাসনের দায়িত্বে আছেন মহামারী মোকাবেলার অভিজ্ঞতা কারও নেই। এমন কঠিন চাপ নিতে পারা অনেকের জন্য কঠিন। তারপরও আমাদের চিকিৎসক, নার্স, চিকিৎসায় নিয়োজিতরাই আমাদের ভরসা। তাদের কাছেই যেতে হবে। তাদের সহযোগীতা করি। সাহস দেই। পাশে থাকি। আর এমন কঠিন সময়ে নোংরা রাজনীতি না করি। 

প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার নোংরা খেলার সময় এখন না। গরুর বাজারের দালালের সাথে গলাগলি করে রাজনীতি বন্ধ করতে হবে। বৈশ্বিক মহামারীর বর্তমান অবস্থায় কে বেঁচে থাকবে কে থাকবেনা কেউ জানেনা। রাষ্ট্র, বিত্তবান সবার সামর্থ্য নিয়ে দ্রুত দাঁড়াই। নিজেদের সৎ, মানবিক, দৃঢ়চেতা বিশেষজ্ঞদের পরামর্শে খুব দ্রুত কাজ করতে হবে। ভেন্টিলেশনসহ চিকিৎসা সুবিধা বাড়াতেই হবে। চিকিৎসকদেরও এগিয়ে আসতে হবে। চিকিৎসকসহ চিকিৎসায় জড়িতদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। নিরাপদ পোশাকে তারাও মানবিকতায় নিজেকে উজাড় করে দেবেন। প্রত্যাশা সবার।

ভয়-শঙ্কা যতই থাকুক প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা আর স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতেই হবে। স্বাস্থ্য বিধি লঙ্ঘন করে বাহবা নেবার, বেটাগিরির সুযোগ এই ভাইরাস দেয় না। সঙ্গনিরোধ, সামাজিক দুরত্ব মেনে চলতে হবে। অন্ধকার থেকে উত্তরণে জীবন বেঁচে থাকুক। মানুষ বেঁচে থাকুক। পরম করুনাময় রহমত বর্ষণ করুন।

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

 

বিডি-প্রতিদিন/সিফাত আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য