শিরোনাম
প্রকাশ : ২১ নভেম্বর, ২০২০ ১৮:৩৩
আপডেট : ২১ নভেম্বর, ২০২০ ১৮:৩৯

সেই সমাজে পরিশুদ্ধি অভিযান চালানোও ঝুঁকিপূর্ণ

ইফতেখায়রুল ইসলাম

সেই সমাজে পরিশুদ্ধি অভিযান চালানোও ঝুঁকিপূর্ণ
ইফতেখায়রুল ইসলাম

অপকর্ম করে ধরা খাওয়ার আগে পর্যন্ত নিজের সর্বোচ্চ দিয়ে নিজেকে বাঁচানোর চেষ্টা করেননি, এমন মানব কি আছেন? 

নিজে অপরাধ করেন নি কিন্তু পরিবারের সদস্য অপকর্ম করেছেন, আপনি সচেতন মানব জেনেছেন! জানার পরপরই নিজ পরিবারের সদস্যের অপকর্ম জানিয়ে আইনের হাতে সোপর্দ করে দিয়েছেন! এমন কেউ কি আছেন? মাথায় রেখেন, পরিবারের সদস্যের অপকর্মের জন্য নিজেরা অশান্তিতে পড়েছেন তারপর জানিয়েছেন তেমন নয় বরং বিবেকের দংশনে জানিয়েছেন, আছেন তেমন কেউ ? থাকলে কত পারসেন্ট? 

কি কথা নেই তো মুখে? দুই, একটি ব্যতিক্রম ছাড়া এটাই আমাদের চরিত্র! নিজের ঘরে পরিশুদ্ধি অভিযান না চালিয়ে অন্যের ঘর পরিশুদ্ধকালীন যতটুকু ময়লা বের হয়ে আসে, সেটি নিয়ে সমালোচনা এই স্বার্থবাদী সমাজ করতেই পারে। সাহস থাকলে নিজের ঘরে পরিশুদ্ধি চালিয়ে দেখান না, কতখানি শক্ত, দৃঢ় ইস্পাত আপনার খুঁটি, খুব সহজেই বেরিয়ে যাবে! কিন্তু সেটা ভুলেও হতে দেয়া যাবে না, তাহলে যে থলের বিড়াল বেরিয়ে আসবে। 

পরিশুদ্ধ করতে চাওয়ার উদাহরণ সকলে সৃষ্টি করতে পারে না, সেটি করার জন্য ভিতরের ও বাহিরের জোর লাগে। আমরা বেশিরভাগই হলাম কৃত্রিম বেশধারী মানুষ, আমাদের তাই ছদ্মবেশ ও ছদ্মবেশী পছন্দ! চিত্রটাই যখন এমন, তখন সেই সমাজে পরিশুদ্ধি অভিযান চালানোও ঝুঁকিপূর্ণ। এই সমাজের আমরা প্রায় অনেকেই নিজেদের উপর বিচার, বিশ্লেষণ না করে শতভাগ সৎ মানুষ। 

নিজের দিকে আঙুল তুলে ধরার সংস্কৃতি আমাদের পূর্বে হয়তো কিছুটা ছিল, এখন তা নেই বললেই চলে আর ভবিষ্যতে ব্যতিক্রম কিছু উদাহরণই হয়তো টিকে থাকবে। জয়তু আমাদের সাধু সমাজ

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

লেখক: লেখক : এডিসি, মিডিয়া অ্যান্ড পিআর

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য