২৭ অক্টোবর, ২০২১ ১০:৩০

কুয়াশা জানান দিয়ে আসছে শীত

আবদুল বারী, নীলফামারী

কুয়াশা জানান দিয়ে আসছে শীত

ষড়ঋতুর দেশে হেমন্ত মানেই শীতের আগমনী বার্তা। শিশির ভেজা কুয়াশা জানান দিচ্ছে শীত আসছে। প্রকৃতিতে হেমন্তের হিম হিম হাওয়া। ঘাস ভিজছে শিশিরে। কার্তিকের হাত ধরে শিশির ভেজা ভোর, হালকা কাঁথায় মোড়ানো রাত নিয়ে দারুণ আগমনী। ইতিমধ্যে হেমন্তের ভোরে শিশিরে সিক্ত দূর্বা ঘাস ও পথঘাট। 

নীলফামারীতে ভোরের কুয়াশাই জানান দিচ্ছে শীতের আগমনী বার্তা। তবে জাঁকিয়ে বসেনি এখানো। কুয়াশামাখা প্রকৃতি আর মাঠে মাঠে ফসলের সম্ভাবনার ঘ্রাণ, কৃষকের চোখে-মুখে আনন্দের রেখা। পাকা ধানের সোনালী দৃশ্য যেন সত্যি মনোমুগ্ধকর।

উৎসব আর আনন্দের মাঝে অনেক গ্রামে শুরু হয়েছে আগাম ধান কাটা। দিনে গরম, রাতে শীতল হাওয়া আর চাদরে ঢাকা ভোরের সূর্যের সোনামাখা রোদ জানান দিচ্ছে শীত আর বেশি দূরে নেই। গ্রামাঞ্চলে একটু বেশি শীত পড়তে শুরু করেছে। উত্তরের  শিরশিরে বাতাস। ভোরের প্রকৃতিতে হাত বাড়ালেই ঠান্ডা ঠান্ডা ভাব। গাছ থেকে ঝরছে পাতা, ঝরছে শিউলি ফুলও। শেষ রাতে গায়ে কাঁথা চাপাচ্ছেন অনেকেই। যদিও দিনে গরমের তীব্রতা খুব একটা কমেনি।

সাংস্কৃতি কর্মী রত্না সিনহা জানান, সন্ধ্যা ও সকালে চারিদিকে ঘন হয়ে কুয়াশা নামে। এসময় থেকে শীতের আমেজ পাওয়া যায়। রাত ও সকালে মৃদু শীতের আমেজ অনুভূত হচ্ছে। 

নীলফামারী জলঢাকা উপজেলার রশিদপুর বালিকা স্কুল এন্ড কলেজের প্রভাষক (ইংরেজি) মো. মন্জুর মোর্শেদ রাজা বলেন, হেমন্ত মানেই শীত শীত ভাব, ঠান্ডা প্রকৃতি। শেষ রাতের দিকে ঠান্ডা লাগে, পরে হয়তো হালকা চাদর মুড়ে দেই। হেমন্ত এলেই প্রকৃতির মতো আমাদের জীবনেও যেন এক শীতলতার অন্যরকম অনুভূতি তৈরি হয়। 

বিডি প্রতিদিন / অন্তরা কবির 

সর্বশেষ খবর