শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২৩:৩২

সরকার পতনের সাইরেন বাজছে

নিজস্ব প্রতিবেদক

সরকার পতনের সাইরেন বাজছে

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবীর রিজভী বলেছেন, স্বৈরশাসনের পতন এখন চূড়ান্ত পর্যায়ে। এই মাফিয়া রাষ্ট্রতন্ত্রের পতন অত্যাসন্ন। ইতিহাস বলছে, বাংলাদেশ কখনই স্বৈরশাসককে গ্রহণ করেনি, করবেও না। এই সরকার ক্ষমতায় থাকতে পারবে না। তাদের পতনের সাইরেন বাজছে। এখন আমাদের অপেক্ষা করতে হবে। জাতীয়তাবাদী তাঁতী দলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল সকাল ১১টায় সংগঠনটির আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদ ও সদস্য সচিব হাজী মজিবুর রহমানের নেতৃত্বে নেতা-কর্মীদের নিয়ে শেরেবাংলানগরে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন রিজভী। পরে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় তিনি বেগম খালেদা জিয়ার গ্রেফতারি পরোয়ানার প্রতিবাদে ঢাকা জেলার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের জিঞ্জিরায় স্থানীয় বিএনপির অফিসের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে পুলিশি বাধার কঠোর সমালোচনা করেন। শেরেবাংলানগরে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপুসহ তাঁতী দলের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

রিজভী আহমেদ বলেন, শেখ হাসিনা সরকার দেশে ফ্যাসিবাদ কায়েম করেছে। তাদের অন্যায়, অপকর্ম আজকে শুধু বাংলাদেশে নয়, আন্তর্জাতিকভাবে প্রচারিত হচ্ছে, প্রকাশিত হচ্ছে। মুখ দেখাতে পারছেন না। কেউ যাতে কথা বলতে না পারে সেজন্য গণতন্ত্রের প্রতীক বেগম খালেদা জিয়াকে কারাবন্দী করে রাখা হয়েছে। তারেক রহমানকে দেশে আসতে না দিয়ে তার বি?রুদ্ধে বার বার মামলা ও সাজা দিয়ে দেশে এক ভয়ংকর নৈরাজ্য তৈরি করা হচ্ছে। এসব করে সরকার মনে করছে, আজীবন টিকে থাকবে। কিন্তু ইতিহাস অন্য কথা বলে।

বিএনপির সিনিয়র এই যুগ্ম মহাসচিব বলেন, জাতীয়তাবাদী শক্তির ঐক্যের প্রতীক বেগম খালেদা জিয়াকে আজকে এই কর্তৃত্ববাদী ফ্যাসিবাদী, জুলুমবাজ সরকার নানাভাবে জুলুম নির্যাতন করছে। বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে। তাকে মানসিক, শারীরিকভাবে পর্যুদস্ত করার জন্য এমন কোনো পন্থা নেই যে, সরকার প্রয়োগ করছে না। সারা দেশের মানুষ আজ ক্ষুব্ধ। সবাই এখন এই সরকারের বিদায় চায়।


আপনার মন্তব্য